news bengali f

মহানগর ওয়েবডেস্ক: বেসরকারি বিনিয়োগ আগেই হয়েছিল। এভার ১০০টির উপর প্যাসেঞ্জার ট্রেনকে বেসরকারি সংস্থার হাতে তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। যা নিয়ে মারাত্মক চটেছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। তিনি এদিন সরাসরি বলেছেন, মানুষ কেন্দ্রের এই পদক্ষেপ সহজে ভুলে যাবে না, তাদের ক্ষমাও করবে না। প্রসঙ্গত, এদিন থেকেই প্রথম প্যাসেঞ্জার ট্রেনগুলিকে বেসরকারিকরনের প্রক্রিয়া শুরু করেছে ভারতীয় রেলওয়ে। এর মাধ্যমে আগামী ৩৫ বছর ট্রেনগুলি চালাতে পারবে ওই বেসরকারি সংস্থা।

কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রকের তরফে একটি বিবৃতি জারি করে বৃহস্পতিবার জানানো হয়েছে, ১০৯টি রুটের ১৫১ জোড়া ট্রেনের বেসরকারিকরণ হবে। বেসরকারি সংস্থার প্রায় ৩০ হাজার কোটির বিনিয়োগ হবে এতে। কেন্দ্রের এই ঘোষণার পর থেকেই নানা মহলে এর বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখা যাচ্ছে। অন্যদিকে কেন্দ্রীয় সূত্রে জানানো হচ্ছে, ক্ষতির বোঝা বইতে না পেরেই পৃথিবীর বৃহত্তম ট্রেন পরিষেবা প্রদানকারী সরকার এই সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে।

বিষয়টি নিয়ে এদিন রাহুল গান্ধী টুইট করে লেখেন, ‘গরিব মানুষের লাইফলাইন হচ্ছে রেলওয়ে, আর সরকার তাদের থেকে সেটা কেড়ে নিচ্ছে। যা পারেন নিয়ে যান। কিন্তু মনে রাখবেন, মানুষ কিন্তু এর যোগ্য জবাব দিয়ে দেবেন।’ প্রসঙ্গত, এই প্রথম কোনও সরকারি চলতে থাকা ট্রেনে বেসরকারি বিনিয়োগের কথা ঘোষণা করেছে রেলওয়ে। তবে যেই প্যাসেঞ্জার ট্রেনে সাধারণত নিম্নবিত্ত মানুষের যাতায়াত সেখানে বেসরকারি বিনিয়োগের ফলে ভাড়া যে বাড়বে তা আগে থেকেই অনুমান করা যায়। সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধি পেলেও একই জিনিস সরকার কেন তা সাধারণ মানুষকে দিতে পারবে না সেই প্রশ্নও তুলেছেন রাহুল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here