news bengal

মহানগর ওয়েবডেস্ক: বিজয় মালিয়া, মেহুল চোকসি ও নীরব মোদীদের মতো একাধিক ঋণ খেলাপকারী শিল্পপতিদের লোনের টাকা নাকি রিজার্ভ ব্যাঙ্ক মাফ করে দিয়েছে। গতকাল এহেন তথ্য প্রকাশ্যে আসার পরই কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে আক্রমণ শানিয়েছিলেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ যার একদফা জবাব দিয়েছেন সকালেই। এবার অর্থনীতির খুঁটিনাটি বুঝতে কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতিকে পি চিদম্বরমের কাছে টিউশন নেওয়ার পরামর্শ দিল বিজেপি।

পি চিদম্বরম নিজে একটা লম্বা সময় ধরে দেশের অর্থনীতি সামলেছেন। ফলে অর্থনীতি সম্পর্কে তাঁর জ্ঞান যাতে তিনি রাহুলকেও ভাগ করে নেন সেই আবেদন জানিয়েছে বিজেপি। এদিন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর টুইটে লেখেন, ‘রাইট অফ এবং ওয়েভ অফ’-র পার্থক্য বুঝতে রাহুলের উচিত দলের বরিষ্ঠ সদস্য এবং প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরমের কাছে টিউশন নেওয়া।’ কেন্দ্রীয় পরিবেশ মন্ত্রীর দাবি, ‘রাইট অফ’ মানে হচ্ছে সাধারণ অর্থনৈতিক হিসেব। রাইট অফ করা মানে কখনও ঋণখেলাপকারীদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়া বন্ধ নয়।’

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবারই একটি আরটিআই-র জবাবে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের তরফে জানানো হয়, দেশের এমন দুর্দিনে বিজয় মালিয়া, মেহুল চোকসিদের মত ঋণখেলাপিদের ৬৯ হাজার কোটি টাকা মুকুব করে দিয়েছে রিজার্ভ ব্যাংক। দেশের ৩০ জন ঋণখেলাপির নাম তুলে তারা কত টাকা ঋণ ফাঁকি দিয়েছেন সে তথ্য জানতে চান সাকেত গোখলে নামে এক ব্যক্তি। তথ্য জানার অধিকার আইন-এ আরবিআই সম্পর্কে তথ্য পেশ করেতাতেই শুরু হয়ে যায় আলোড়ন। তালিকায় নীরব-মেহুলের পাশাপাশি বাবা রামদেবের নামও থাকায় রাহুল দাবি করতে শুরু করেন, ‘বন্ধুদের’ সুবিধা পাইয়ে দিচ্ছে শাসকদল। বলাই বাহুল্য সেই দাবি নস্যাৎ করে দিয়েছে বিজেপি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here