ডেস্ক: বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পর থেকেই প্রতিক্রিয়া জানাতে দেখা গেছে কংগ্রেস নেতা নভজিত সিং সিধুকে। বাহুবলীর পর এবার রাহুল গান্ধীকে ‘ম্যান অফ দ্যা সিরিজ’এর তকমা দিলেন সিধু। তাঁর দাবি বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের চমকপ্রদ ফলাফলই ২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনের ভিত্তি প্রস্তুত করে দিচ্ছে। সিধু জানান, সমস্ত রাজনৈতিক দলের কর্মীরাই এই নির্বাচনে ভালো কাজ করেছে। তবে কংগ্রেসের এই বিপুল ভোটব্যাঙ্কই প্রমাণ করে দিয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রতিশ্রুতির মিথ্যা মুখোশ উন্মোচিত হয়ে গেছে।

সিধুর দাবি, মানুষের মধ্যে জমে থাকা ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ হয়েছে গতকালের ফলাফলে। প্রধানমন্ত্রী ক্ষমতায় আসার পর থেকেই একের পর এক গাল ভরা মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়ে সাধারণ মানুষকে ভুল বুঝিয়ে গেছেন। কিন্তু সেগুলোর একটাও পূরণ হয়নি। দিনের পর দিন কর্ম সংস্থানের অভাবে জেলাগুলিতে বেকার সমস্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে, ফসলের ন্যায্য মূল্য ও ঋণ মুকুবের মত একাধিক সমস্যায় জর্জরিত হয়ে কৃষকরা বিদ্রোহের পথ বেছে নিয়েছে। এহেন একাধিক সমস্যা সমাধান করতে বিজেপি ব্যর্থ ছিল। সাবার উপরে ছিল কালোটাকা ফেরানোর প্রত্যাশা দিয়ে নোটবন্দি। এগুলোর প্রতিটিতেই বিজেপির অসফলতা মানুষকে গেরুয়া বিদ্বেষী করে তুলেছে।

বিজেপির এহেন পরাজয়ের পরও নিজেদের কাজের প্রশংসা করতে দেখা গেল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংকে। তিনি বলেন বিজেপির সমস্ত কর্মীরাই তারিফ পাওয়ার মত কাজ করেছে। তবে সমস্ত কিছুর ঊর্ধ্বে গিয়ে আমরা জনতার রায়কে মেনে নিয়েছি। উল্লেখ্য, গতকালই পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফলের দিন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিইয়েছিলেন কংগ্রেস নেতা নভজ্যোত সিং সিধু। কংগ্রেস সভাপতিই হচ্ছেন এখন নতুন ‘বাহুবলী’। তিনি আরও বলেন, রাহুল গান্ধীর সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছেছেন, তাদের স্বার্থে কাজ করছেন। তিনি যত শক্তিশালী হবেন, ততই প্রগতি করবে কংগ্রেস।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here