modi rahul news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: আর্থিক অনিয়মের অভিযোগে গান্ধী পরিবারের সঙ্গে সম্পর্কিত তিনটি ট্রাস্ট নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের তদন্তের নির্দেশের পরিপ্রেক্ষিতে রাহুল গান্ধী রাহুল গান্ধী মোদী সরকারকে পাল্টা আক্রমণ করে জানালেন, ”যারা সত্যের জন্য লড়াই করে তাদের কোনও মূল্য দিয়ে কেনা যায় না, তাদের ভয়ও দেখানো যায় না।” কংগ্রেসের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, কেন্দ্রের কাপুরুষোচিত আচরণ ও অন্ধের মতো অপরাধী খোঁজার চেষ্টা সরকারের ভীতিকেই প্রকাশ করে দিচ্ছে। এই ভাবে কংগ্রেস নেতৃত্বকে ভয় দেখানো যায় না।

একটি আন্তঃমন্ত্রক কমিটি রাজীব গান্ধী ফাউন্ডেশন, রাজীব গান্ধী চ্যারিটেবল ট্রাস্ট এবং ইন্দিরা গান্ধী মেমোরিয়াল ট্রাস্ট এর আয়কর ও বিদেশি অনুদানের অনিয়ম সংক্রান্ত বিষয়টির তদন্তে সংযোগ রক্ষা করবে বলে জানানো হয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক সূত্রে। এই প্রসঙ্গে রাহুল গান্ধী টুইট করে জানিয়েছেন, ”মোদী বিশ্বাস করেন দুনিয়াটা তার মতো। উনি ভাবেন সকলের একটা দাম (বিক্রয় মূল্য) আছে অথবা ভয় দেখানো যায়। উনি কোনওদিনই বুঝতে পারবেন না যারা সত্যের জন্য লড়াই করে তাদের কেনা যায় না এবং ভয়ও দেখানো যায় না।”

কংগ্রেসের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে এই তদন্ত আসলে কংগ্রেস নেতৃত্বের প্রতি বিজেপির গোপন ঘৃণার বহিঃপ্রকাশ। ভারতের নিরাপত্তা এবং সীমানার অখণ্ডতার বিষয়ে খোলাখুলি আপোস, কোভিড–১৯ সংকট সামলাতে সার্বিক ব্যর্থতা যার ফলে মানুষের প্রাণ ও রুটি–রুজি প্রতিদিন বিপন্ন হচ্ছে, অর্থনৈতিক মন্দা রোখার ক্ষেত্রে ব্যর্থতা সম্পর্কিত একরাশ প্রশ্নের জবাব না দিতে পেরে প্রতিহিংসাপরায়ণ হয়ে মোদী–শাহ সরকার তাদের বিরুদ্ধে এই ঘৃণ্য পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

যে ট্রাস্টগুলির বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে সে সবই মানবিক ও উল্লেখযোগ্য কাজের সঙ্গে জড়িত এবং এই প্রতিহিংসামূলক তদন্ত সামলানোর ক্ষমতা ট্রাস্টগুলি রাখে বলে জানানো হয়েছে কংগ্রেসের তরফে। ”বিজেপি’র অপ্রকৃতিস্থ নেতৃত্ব মোদী সরকারের অপদার্থতা এবং ব্যর্থতা থেকে নজর ঘোরানোর জন্য প্রতিদিন একটি করে নতুন ষড়যন্ত্র তৈরি করছে। চিনের সঙ্গে বিজেপি’র গভীর সংযোগ, পিএম কেয়ারস ফান্ডে চিনের রহস্যময় অনুদান এবং চিনা মালিকানাধীন ব্যবসার হয়ে ক্রমাগত তদবির করে চলা ইত্যাদি বিষয় প্রশ্ন ওঠা নিয়ে তারা সবসময়ই ভীত” বলে মন্তব্য করা হয়েছে কংগ্রেসের পক্ষ থেকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here