ডেস্ক: কর্ণাটক বিধানসভা নির্বাচনে জয়লাভ করতে নিজের সর্বশক্তি দিয়ে ঝাঁপাচ্ছে রাহুল গান্ধির কংগ্রেস। কিন্তু তার আগে মঙ্গলবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে নিজেকে প্রধানমন্ত্রী পদের দাবিদার হিসাবে পেশ করলেন কংগ্রেস সভাপতি। ২০১৯ সালের এজেন্ডা স্পষ্ট করে রাহুল জানিয়ে দেন, যদি লোকসভা নির্বাচনে তাঁর দল জয়লাভ করে তবে তিনি প্রধানমন্ত্রী হতে পারেন। ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে তাঁর দল জিতলে তিনি প্রধানমন্ত্রী হবেন কিনা জানতে চাওয়া হয়। তখন রাহুল বলেন, ‘হ্যাঁ হতেই পারি। কেন নয়?’

রাহুলের এই মন্তব্যেই স্পষ্ট হয়ে যায় ২০১৯ সালের জন্য কোমর বেঁধে নেমে পড়েছে তাঁর দল। কারণ সম্ভবত এই প্রথমবার প্রধানমন্ত্রীর পদ নিয়ে এই তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য করলেন রাহুল। নিজের ভুল স্বীকার করে নিয়েই তিনি বলেন, ”কয়েকটি রাজ্যে যদি আমরা নিজেদের রণনীতি নিয়ে কাজ করতাম তাহলে ২০১৪-র মতো ফলাফল দেখতে হতো না কংগ্রেসকে।” বিজেপি সরকারকে রীতিমতো চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে তিনি জানিয়ে দেন, নরেন্দ্র মোদী আর প্রধানমন্ত্রীর হতে পারবেন না। ২০১৯-এ দেখে নেবেন আপনারা।

বিজেপিকে কটাক্ষ করে তিনি আরও প্রশ্ন করেন, ”এরম মানুষকে কেন মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী করা হয়েছে যার নামে কয়েকবার জেলযাত্রার রেকর্ড রয়েছে?” বেঙ্গালুরুতে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মোদীকে নিশানায় নিয়ে কংগ্রেস সভাপতি আরও বলেন, ”আমি প্রধানমন্ত্রীর কাছে জানতে চাই কেন একজন দুর্নীতিগ্রস্থ মানুষকে মুখ্যমন্ত্রীর পদপ্রার্থী হিসাবে বাছলেন তিনি? রেড্ডি ব্রাদার্সদেরও বা টিকিট কেন দেওয়া হল?” উল্লেখ্য, ৩৫ হাজার কোটি টাকার দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে এই রেড্ডি ব্রাদার্সের বিরদ্ধে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here