ডেস্ক: আন্তর্জাতিক স্তরে পাকিস্তানের পাশে দাঁড়িয়েছে চিন। জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মহম্মদের নেতা মাসুদ আজহারকে আন্তর্জাতিক জঙ্গির তকমা দিতে রাষ্ট্রসংঘের প্রস্তাবে ভেটো প্রদান করেছে চিন। সেই নিয়েই চিনের সঙ্গে ভারতের আন্তর্জাতিক স্তরে মতবিরোধ চরমে উঠেছে। চিনের এই ভেটো দেওয়ার কারণেই মাসুদ আজহারকে জঙ্গি তকমা দেওয়া হবে না। চিনের এই সিদ্ধান্তের পর বৃহস্পতিবার সাংবাদিক বৈঠকে বসেন কেন্দ্রীয়মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ।

সাংবাদিক বৈঠক থেকে এই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কার্যত রাহুল গান্ধীর বিরুদ্ধেই আক্রমণ শানিয়েছেন। তিনি বলেন, রাহুল গান্ধীকে এখন দেখে মনে হচ্ছে তিনি চিনের এই ভেটো দেওয়ার বিষয়টিতে আক্ষরিক অর্থে খুব খুশী। মোদি-জিংপিং সম্পর্ককে কটাক্ষ করে রাহুল বলেন, ‘চিন ভারতের বিরুদ্ধে কথা বলছে৷ আর মোদিজির মুখ থেকে একটি কথাও বেরচ্ছে না৷ গুজরাতে জিংপিংয়ের সঙ্গে দোলনায় দুলেছেন৷ দিল্লিতে আলিঙ্গন করেছেন৷ তারপরেই জিংপিংয়ের কাছে মাথা নত৷’ কংগ্রেসের ট্যুইট, ‘চিন যে ভাবে ভয়াবহ জঙ্গি মাসুদ আজহারকে গ্লোবাল টেররিস্ট তকমা দেওয়ার ক্ষেত্রে ভেটো দিচ্ছে, তাতে দেশবাসীর মনে একটাই প্রশ্ন, জিংপিং-মোদির বন্ধুত্ব কী হল?’

 

রাহুল গান্ধীর এই ট্যুইটের প্রেক্ষিতে পালটা দিয়ে রবি শঙ্কর প্রসাদ বলেন, চিনের এই ভেটো নিয়ে যখন গোটা দেশে তোলপাড় চলছে তখন রাহুল গান্ধী উৎসবের মেজাজে রয়েছেন। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর একটাই প্রশ্ন যে রাহুল গান্ধীর সঙ্গে এখন কী হচ্ছে? এই নিয়ে ১০ বছরে চারবার মাসুদ আজহারকে আন্তর্জাতিক জঙ্গি তকমা দেওয়ার বিষয়ে ভেটো দিল চিন। একমাত্র চিন ছাড়া আমেরিকা, ফ্রান্স সহ অন্যান্য দেশের তরফে মাসুদ আজাহারকে জঙ্গি তকমা দিতে রাজি ছিল ৷ চিনের নিষেধাজ্ঞায় প্রতিবেশী দেশের উপর আরও একবার ভরসা হারাল ভারত এবং ভারতের প্রতিটি সাধারণ মানুষ ৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here