ডেস্ক: রাফাল ইস্যুতে কেন্দ্রের উপর আক্রমণ অব্যাহত কংগ্রেসের। তবে এবার আর নয়া অভিযোগ তুলে নয়। বরং সরকারের দাবিকেই হাতিয়ার করে খোঁচা মারলেন রাহুল। বুধবার সুপ্রিম কোর্টে কেন্দ্রীয় সরকারের অ্যাডভোকেট জেনারেল বলেন, প্রতিরক্ষা মন্ত্রক থেকে নাকি চুরি গিয়েছে রাফালে সংক্রান্ত নথি। আর এই দাবিকে একহাত নিয়েই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ‘পাকিস্তানের পোস্টার বয়’ বলে খোঁচা মারেন রাহুল গান্ধী।

বৃহস্পতিবার সাংবাদিক বৈঠক করে মোদীকে নিশানায় নেন রাহুল। কংগ্রেসের উপর পাক সখ্যতার অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে রাহুল বলেন, মোদীই পাকিস্তানের আসল ‘পোস্টার বয়’। কারণ নওয়াজ শরিফের বিয়েতে আমরা যায়নি। গেছিলেন মোদী। পাঠানকোট হামলায় তদন্তের জন্য আইএসআইকে নিয়োগও আমরা করিনি। করেছিলেন মোদী। রাহুল গান্ধীর বক্তব্য, ‘নওয়াজ শরিফের বিয়েতে আপনি গেলেন, পাঠানকোটে আপনিই আইএসআইকে ডাকলেন। তাহলে পাকিস্তানের পোস্টার বয় আমরা হলাম কী ভাবে? শরিফকে আলিঙ্গন করে মোদীই পাকিস্তানের আসল পোস্টার যে সেটা প্রমাণ করে দিয়েছেন। মোদীকে রাহুলের আরও খোঁচা, ‘নওয়াজ শরিফকে কিন্তু আপনিই নিজের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ করেছিলেন, আমরা নই।’

 

প্রধানমন্ত্রীর একদা এই পাকিস্তান ঘনিষ্ঠতাকে আদতে ‘নাটক’ বলে কটাক্ষ করেন কংগ্রেস সভাপতি। এদিনের সাংবাদিক বৈঠকে রাফাল ছাড়াও উঠে আসে বালাকোটে এয়ার স্ট্রাইক প্রসঙ্গ। তবে সেই বিষয়টি সন্তর্পণে এড়িয়ে যান রাহুল। রাফাল বিতর্ক নিয়ে তাঁর ব্যাখ্যা, এই নথি চুরির কথা বলে মোদীজি রাফাল দুর্নীতি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করছেন। আপনারা আদালতে বলছেন যে রাফাল চুক্তি সংক্রান্ত সকল নথি নিখোঁজ হয়ে গিয়েছে। তার মানে এটা দাঁড়ায় যে, নথিগুলি সবটাই সত্য ছিল এবং এই নথিগুলিতে এও লেখা ছিল প্রধানমন্ত্রী মোদী এই চুক্তি নিয়ে দরদাম করেছিলেন। যাতে এই নথি সকলের হাতে না চলে আসে তার জন্য এখন নথি চুরি হওয়ার গল্প ফাঁদছেন

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here