ডেস্ক: কর্ণাটক বিধানসভা নির্বাচনে সরকার গঠনের ক্ষেত্রে একধাপ এগিয়েই বিজেপি-আরএসএস সহ নরেন্দ্র মোদী ও অমিত শাহকে চরম ভাষায় কটাক্ষ করলেন রাহুল গান্ধি। এদিন রাহুল সাংবাদিক সম্মেলনে এসে প্রধানমন্ত্রীর উপর বেনজির হামলা চালান রাহুল। কংগ্রেস সভাপতি বলেন, ”আপনারা কি লক্ষ্য করেছেন? ইয়েদুরাপ্পা পদত্যাগ ঘোষণা করার পরই জাতীয় সঙ্গীত চলাকালীন বিধানসভা কক্ষ ছেড়ে বেরিয়ে যান বিজেপির নেতারা? ইয়েদুরাপ্পা এবং রাজ্যপাল জাতীয় সঙ্গীতেরও সম্মান করেন না। বিজেপি এবং আরএসএসের মানসিকতাই হল, নিজেদের ছাড়া আর কাউকে বা কোনও প্রতিষ্ঠানকে সম্মান দেব না।”

বিজেপিকে আক্রমণ করে তিনি আরও বলেন, ”বিজেপি সবকিছুকেই ভাবে ক্ষমতা দিয়ে কিনে ফেলতে পারবে। কিন্তু কর্ণাটক আজ দেখিয়ে দিয়েছে কোনও প্রতিষ্ঠান বা কোনও আদালতকে কিনে নেওয়া যায় না। মোদী নিজে ‘ঘোড়া কেনা-বেচা’-কে অনুপ্রেরণা দেন। তিনি দুর্নীতিকে মুখে না প্রশ্রয় না দিলেও তিনি নিজেই দুর্নীতির মূর্তি। আপনারা সবাই জানেন, মোদী স্বৈরাচারী শাসন চালাচ্ছেন।”

দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর অবশেষে যবনিকা পতন! কর্ণাটকে বিধানসভা নির্বাচনের ফল প্রকাশের পরই রাতারাতি শপথ নিয়ে ফেলেছিলেন বিজেপির বিএস ইয়েদুরাপ্পা। কিন্তু ৭২ ঘণ্টাও টিকল না তাদের জয়ের উৎসব। সংখ্যাগরিষ্ঠটা প্রমাণ করতে পারবেন না বুঝতে পেরেই পদত্যাগ করলেন ইয়েদুরাপ্পা। একই সঙ্গে জয়ের উৎসবে মেতে উঠল রাহুল গান্ধির কংগ্রেস। নাটকীয়তার বহু অধ্যায় পেরিয়ে এবার কংগ্রেস-জেডিএস জোটের হতেই এসে গেল সরকার গঠনের সুযোগ।

ফল ঘোষণার পর থেকেই ঘোড়া কেনা-বেচার বিষয়টি উঠে এসেছিল শিরোনামে। কিন্তু সুপ্রিম আদেশে রাজ্যপালের ১৫ দিনের দেওয়া সময়সীমা এসে ৪৮ ঘণ্টায় দাঁড়ায়। আর শীর্ষ আদালতের এই রায়ই হয়ে দাঁড়ায় বিজেপির সরকার গঠনের স্বপ্নের পথে বাধা।

”এই জয় গণতন্ত্রের।” বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পা পদত্যাগ করার মুহূর্তের মধ্যেই এই টুইট ভেসে আসে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের টুইটারে। পদত্যাগের পর কংগ্রেস নেতা গুলাম নবি আজাদও একই সুরে বলেন, এই জয় গণতন্ত্রের জয়। বিজেপির মিথ্যাচার ও পেশিশক্তি পেরিয়ে এই জয় কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধি ও কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধির জয়। কংগ্রেসের মুখপাত্র রণদীপ সুরযেওয়ালাও জানান, বিজেপির পেশিশক্তি ও লোভের টোপে পড়েন নি আমাদের বিধায়করা। রাহুল গান্ধি যেভাবে কর্ণাটকের মাটি কামড়ে পড়েছিলেন এটা তারই ফল।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here