kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে বিক্ষোভে নেমেছে গোটা রাজ্য। এরইমধ্যে এই বিক্ষোভ সবচেয়ে জোরদার হয়েছে শাহিনবাগে। তার আচঁ কিছুটা হলেও পড়েছে পার্কসার্কাসে। ভরা শীতের থেকেইপার্কসার্কাসের রাস্তায় বসে এনআরসি তথা নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে যাচ্ছেন মুসলিম সম্প্রদায়। এবার এই আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তাদের ‘বাংলাদেশী অনুপ্রবেশকারী’ বলে মন্তব্য করেন তিনি।আর এই মন্তব্যের পরেই বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন বিজেপির কেন্দ্রীয় কমিটির সম্পাদক।

পার্কসার্কাসের আন্দোলকারীদের মধ্যে রয়েছেন আট থেকে আশি সমস্ত বয়সীই। রয়েছন মহিলারাও। আর মহিলারা থাকায় সঙ্গে আনতে হয়েছে তাদের সন্তানদের। প্রথম দিন থেকে সন্তানদের সঙ্গে নিয়েই তাই আন্দোলন করতে দেখা গেছে মুসলিম মহিলাদের। রবিবার এই আন্দোলনকারীদের বিষয়ে মন্তব্য রাখতে গিয়ে রাহুল সিনহা বলেন, ‘পার্কসার্কাসে যে বাচ্চারা আন্দোলনে আছে, ওরা বিদেশি বাচ্চা। ওখানে সব বাংলাদেশি মুসলমান। ওদের ভারত ছাড়তেই হবে। আজাদি স্লোগান এখানে চলবে না।’

এরপর এদিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এনআরসি বিরোধী আন্দোলনকে সমর্থন করার প্রসঙ্গেও সরব হন রাহুল সিনহা। মুখ্যমন্ত্রীকে বিদ্ধ করে তিনি বলেন, ‘উনি দেশ বিরোধী কাজ করছেন। যাদবপুরকে ঠিক করতে পারলেন না। ক্ষমতায় এসে দু’মাসের মধ্যে ঠিক করে দেব।’ এদিকে রাহুল সিনহার এই মন্তব্য প্রকাশ্যে আসার পরেই নিন্দার ঝড় বয়ে যায় রাজনৈতিক মহলে। রাহুল সিনহার বক্তব্যের প্রেক্ষিতে প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র বলেন, ‘ছোটো স্তরের নেতা। উত্তর দেওয়া প্রয়োজন মনে করি না।ইডিয়টের মতো মন্তব্য করেছেন তিনি।’ অন্যদিকে তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে এবিষয়ে চন্দ্রিমা ভট্ট্যাচার্য বলেন, ‘লোকের জামা কাপড় দেখে, খাওয়া দেখে ওনারা বুঝে যাচ্ছেন কে কি। তারপর আজকের এই মন্তব্য যা অত্যন্ত নিন্দনীয়।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here