news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: আপাদমস্তক নেতৃত্ব বদল করা হোক কংগ্রেসে। দলের ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকের আগে প্রকাশ্যে আসা এই চিঠি রীতিমতো ঝড় তুলেছিল কংগ্রেস শিবিরে। পরিবর্তনের এই চিঠিতে সায় দিয়ে স্বাক্ষর করেছিলেন গুলাম নবি আজাদ, কপিল সিব্বলের মত ২৩ শীর্ষ কংগ্রেস নেতৃত্ব। বিষয়টি সামনে আসার পরই অন্তর্দ্বন্দ্ব শুরু হয় দলের অন্দরে। রাহুল গান্ধীর কোপের মুখে পড়েন কংগ্রেসের নেতা গুলাম নবি আজাদ সহ একাধিক নেতৃত্ব। এই ঘটনার পেছনে বিজেপির হাত রয়েছে বলে দাবি করেন রাহুল। রাহুলের এই মন্তব্য ভাল চোখে নেননি গুলাম নবি আজাদ। পাল্টা রাহুলকে চ্যালেঞ্জ করেন তিনি। এমনই এক টালমাটাল পরিস্থিতির পর রুষ্ট বরিষ্ঠ নেতার মানভঞ্জনে নামলেন সনিয়া গান্ধী ও রাহুল গান্ধী। জানা গেছে, সম্প্রতি গুলাম নবি আজাদকে ফোন করে কথা বলেন তারা। অনুমান করা হচ্ছে রুষ্ট আজাদকে সামাল দিতেই এই ফোন।

সংবাদমাধ্যম সূত্রের দাবি কংগ্রেসের ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকের আগে যে চিঠি প্রকাশ্যে আসে তাতে রুষ্ট হন বহু নেতা। টানা ৭ ঘণ্টা ধরে চলা দলের বৈঠকে একাধিক নেতৃত্ব পরোক্ষ ও প্রত্যক্ষ ভাবে আক্রমণ শানানো হয় নেতৃত্ব বদলের দাবি তোলা গুলাম নবি আজাদের উদ্দেশ্যে। জানা গিয়েছে ওই দিনের বৈঠকে মল্লিকার্জুন খাড়গে ও অম্বিকা সোনি এই চিঠির জন্য তদন্তের দাবি তোলেন। সভায় আজাদকে ‘দূষিত নেতা’ অভিযোগ তুলে তাকে বক্তব্য রাখতে না দেওয়ার দাবি করেন অধীর রঞ্জন চৌধুরী। পত্র বোমায় বিজেপি যোগের আশঙ্কা প্রকাশ করেন রাহুল। এমন টালমাটাল পরিস্থিতির পর দলে রীতিমতো অপমানিত গুলাম নবী আজাদের মান ভাঙাতে এদিন তাকে ফোন করলেন সনিয়া ও রাহুল। জানা গিয়েছে ফোন করে সোনিয়া গান্ধী আজাদকে আশ্বস্ত করেন তার আবেদন গুরুত্বসহকারে ভেবে দেখবে দল। পাশাপাশি রাহুল গান্ধীও আজাদকে জানান, এই চিঠিতে যারা স্বাক্ষর করেছে তাদের সঙ্গে বিজেপির যোগ রয়েছে এমনটা বলেননি তিনি।

প্রসঙ্গত, কংগ্রেসের ২৩ নেতার স্বাক্ষর সহ নেতৃত্ব পরিবর্তনের যে চিঠি প্রকাশ্যে আসে তাতে রাহুল গান্ধী সহ একাধিক নেতৃত্ব বিজেপি যোগের গন্ধ পান। এর পর রীতিমতো ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন গুলাম নবি আজাদ। কারণ তার স্বাক্ষর ছিল ওই চিঠিতে। তিনি স্পষ্ট জানান যদি কেউ প্রমাণ করতে পারে বিজেপির সঙ্গে মিলে তিনি এই চিঠি লিখেছেন তাহলে পদত্যাগ করবেন তিনি। চিঠিতে স্বাক্ষর রয়েছে এমন দুই নেতা সমর্থন করেন আজাদের মন্তব্য। তারা বলেন সোনিয়া নেতৃত্বের সমালোচনা এই চিঠির উদ্দেশ্য ছিল না। ঘটনার পর আজাদের মানভঞ্জনের উদ্দেশ্যে তার বাড়ি যেতে দেখা গিয়েছিল কংগ্রেসের একাধিক নেতৃত্বকে। সেই ঘটনার পর এবার ফোন করে পরিস্থিতি সামাল দিলেন সোনিয়া রাহুল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here