ডেস্ক: রবিবার নয়াদিল্লির রামলীলা ময়দানে জন আক্রোশ র‍্যালির সূচনা করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সহ বিজেপিকে তুলোধোনা করলেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধি। তাঁর সঙ্গে ছিলেন প্রাক্তন দলনেত্রী সোনিয়া। তিনিও কম যান না। মা-ছেলে দুজনেই সাফ জানিয়ে দেন, ২০১৯ সালে ক্ষমতায় আসছে কংগ্রেসই। একই সঙ্গে তাদের দাবি, অন্য কারও মনের কথা নয়। সাধারণ মানুষের মনের কথাই শুনবে তাদের দল।

এদিনের র‍্যালিতে প্রায় ২ লক্ষ দলীয় সমর্থকের সমাগম হয় রামলীলা ময়দানে। আক্রোশ র‍্যালিতে রাহুল বলেন, ”মোদীর কাজে কেউ খুশি নন, আমি যাকেই প্রশ্ন করি তারাই জবাব দেন তারা খুশি নন। গত ৭০ বছরে দেশকে একজোট করেছে কংগ্রেস, অন্যদিকে দেশে জনবিরোধী শাসন চালাচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার। নীরব মোদী দেশ থেকে পালিয়ে গেলেন, তাও প্রধানমন্ত্রী নীরব। কোনও উদ্দেশ্য নেই, তাও চিন সফরে গিয়েছেন। বিজেপির সঙ্গে আরএসএস হাত মিলিয়ে দেশের গণতন্ত্রকে ধ্বংস করছে।”

এদিনের র‍্যালিতে রাহুল আরও বলেন, ”মোদী সরকারের উপর মানুষের রাগ ক্রমশ বাড়ছে। ১৫ জন শিল্পপতির ঋণ মকুব করেছেন, কিন্তু বারবার আবেদন করা সত্ত্বেও সেই ঋণ মকুব করা হয়নি। বেকারত্ব বাড়ছে, নারী সুরক্ষা নেই, শিশু ধর্ষণ বাড়ছে। সাধারণ মানুষের প্রতি এমন অবিচার কেবল মোদীই করতে পারেন। দেশের মানুষ এখন মুক্তির পথ খুঁজচে। ২০১৯ সালে কংগ্রেস দেখাবে নিজেদের ক্ষমতা।”

রাহুল ছাড়াও প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে এদিন সরব হন সোনিয়া গান্ধি। তিনি বলেন, ”মোদীর বক্তব্য ছিল, না খাউঙ্গা না খানে দুঙ্গা। কিন্তু মোদীজির আমলেই দেশে দুর্নীতি আরও বেড়েছে। যে মোদী সরকারের বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলবে তাঁর উপরই আক্রমণ করা হবে।’ এদিনের জন আক্রোশ র‍্যালিতে প্রাক্তন ইউপিএ চেয়ারপার্সন সোনিয়া গান্ধি ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here