দেশদ্রোহিতার মামলায় অপর্ণা, সৌমিত্র সহ ৪৯জন বুদ্ধিজীবীদের পাশে রাহুল গান্ধী

0
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: গণতন্ত্র থেকে স্বৈরাচারের দিকে চলেছে দেশ৷ এমনটাই মনে করেন ওয়েনাড়ের কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী৷ সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রীকে গণপিটুনির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ পত্র লেখায় অপর্ণাসেন, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, আদুরে গোপালকৃষ্ণন, মণি রত্নম, রামচন্দ্র গুহ, শুভা মুদগল সহ দেশের ৪৯ জন বুদ্ধিজীবীদের বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার মুজাফ্ফরপুর থানায় এফআইআর দায়ের করেছেন আইনজীবী সুধীর কুমার ঝা৷ এর আগে বিহারের মুজাফফরপুর দায়রা আদালতে এইসব বুদ্ধিজীবীদের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতার মামলা করেন তিনি৷ পুরো বিষয়ে  নিয়ে শুক্রবার তুমুল সমালোচনা করলেন কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী৷ তাঁর কথায়, দেশে একনায়কতন্ত্র স্বৈরাচারী শাসন তলছে৷ এটাই তার পরিষ্কার উদাহরণবলে বিশ্বাস করেন তিনি৷ বর্তমানে তিনি তাঁর লোকসভা কেন্দ্র কেরলেন ওয়েনাড়ে আছেন৷ সেখানে রাজ্য সরকারের বন্দিপুরা ব্যাঘ্রপ্রকল্পের পাশ দিয়ে রাতে বাস যাত্রার সিদ্ধান্তের বিরোধিতার জন্য অবস্থান করেছেন কংগ্রেসের এই প্রাক্তন সভাপতি৷

অপর্ণা, সৌমিত্র সহ ৪৯জন বুদ্ধিজীবীরা প্রধানমন্ত্রীকে খোলা চিঠি লিখেছিলেন৷ সেখানে তাঁরা দেশের অসহিষ্ণুতা ও রামের নামে গণপিটুনি নিয়ে সমালোচনায় সরব হয়েছিলেন৷ পাশপাশি এই সব রুখতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীর কাছে করেছিলেন৷ এইসব বুদ্ধিজীবীদের অন্যতম বিশিষ্ট চিত্রপরিচালক আদুর গোপালকৃষ্ণন স্পষ্ট জানান, আমাদের চিঠি আগাগোড়া ইতিবাচক ছিল৷ আমরা মোদী সরকারের কোনো সমালোচনা করিনি৷ সেই সঙ্গে তাঁর প্রশ্ন, বুঝতে পারছি না আমনাদের বিরুদ্ধে মামলা ও এফাইআর কেন করা হল? রাহুল গান্ধী তাঁর সঙ্গে একমত৷ তাঁর কথা, এই বিষয়ে মামলা গ্রহণ করাই উচিত হয়নি৷ রাহুলের সোজা কথা, সরকারের বিরুদ্ধে কোনো কথা বললেই তাঁকে হয় জেলে ভরে নয়তো দেশদ্রোহিতার তকমা দেওয়া হয়৷ দেশের এখন এটাই রীতি৷ মোদী সরকার বিরোধিতা সহ্য করে না৷ তাদের সেই গণতান্ত্রিক সহিষ্ণুতা নেই বলে সাফ অভিযোগ করেন তিনি৷

জয় শ্রীরাম এখন ধর্মীয় স্লোগান নয়, তা গণপিটুনিতে কাজে লাগে৷ এমনটাই অভিযোগ করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে খোলা চিঠি লিখেছিলেন অপর্ণা সহ ৪৯জন বুদ্ধিজীবী৷ আইনজীবী ঝাঁ জানান, ওই চিঠিতে বুদ্ধিজীবীরা ধর্মীয় ভাবাবেগ, গোষ্ঠীর ভাবাবেগকে আঘাত করেছে৷ তাই তিনি এই বিষয়ে মামলা করেছেন বলে জানান৷ তাঁর কথায় এই বিষয়ে ওই ৪৯জন বুদ্ধিজীবীদের বিরুদ্ধে এফআইআর করেছেন৷ এঁদের শাস্তি চান বলে স্পষ্ট জানান তিনি৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here