ডেস্ক: যাত্রী পরিষেবা এবং প্যান্ট্রি কার্ডের খাবারের গুণাগুন খতিয়ে দেখতে এবার নয়া উদ্দ্যোগ রেল কর্তৃপক্ষের। এবার রেলে নিয়োগ হতে চলেছে রেল গুপ্তচর। যাদের কাজ হবে গোপনে রেলের পরিষেবার খবরা খবর বের করা। আর সেই কারণেই ছদ্মবেশ এই গোয়েন্দা বা গুপ্তচর নিয়োগ করা হচ্ছে। এদের নিয়োগ করবে সাধারণত পুলিশ বা কোনও গোয়েন্দা সংস্থা। রেল কর্তৃপক্ষের এমন সিদ্ধান্তের কারণ- যাত্রীরা স্বাচ্ছন্দ্যে যাতায়াত করতে পারছে কিনা, ট্রেনের খাবারের মান পরীক্ষা, যাত্রীরা ঠিকমত পরিষেবা পারছে কিনা এই বিষয়গুলো খোঁজ খবর নিয়ে দেখা। কিভাবে কাজ করবেন এই গুপ্তচররা? এরা ট্রেনে আর পাঁচজন সাধারণ যাত্রিদের মধ্যেই মিশে থাকবেন। তাদের সঙ্গে কথা বলবেন। স্টেশন হোক কিংবা রেলে খাবার কিনে খাবেন ও খাবারের নমুনা পরীক্ষা করে দেখবেন।

এরপর গুপ্তচররা সেই সংক্রান্ত রিপোর্ট রেল মন্ত্রকের কাছে পেশ করবেন। মুলত যাত্রী পরিষেবার মানকে খতিয়ে দেখতেই এই গুপ্তচর নিয়োগের সিদ্ধান্ত রেলের। এই আলোচনা পুরোটাই প্রাথমিক স্তরে আছে। এই কাজে বিভিন্ন কেন্দ্রীয় সংস্থার আধিকারিক এবং বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনকেও ব্যবহার করা হতে পারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here