ডেস্ক: অবশেষে শহরে নামল স্বস্তির বৃষ্টি। গত কয়েকদিন ধরেই তীব্র দাবদাহে প্রাণ ওষ্ঠাগত হয়ে উঠেছিল রাজ্যবাসীর। তবে বুধবার সকালে রোদ থাকলেও আকাশ কিছু কিছু জায়গায় মেঘলা ছিল। এরপরই বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে নামে অঝোরে বৃষ্টিপাত। মঙ্গলবার পর্যন্ত কলকাতা সহ জেলাগুলোর তাপমাত্রা ছিল ৪০ ডিগ্রি। গত ১০ বছরের তাপমাত্রার মানচিত্রে নয়া রেকর্ড সৃষ্টি করেছিল আষাঢ়ের এই গরম। তবে আপাতত স্বস্তি ধারা নামিয়ে শহর ভেজাল বৃষ্টি।

আবহাওয়া দফতরের তরফে আগামী তিন ঘণ্টার মধ্যে বাঁকুড়া, বর্ধমান, বীরভূম, পশ্চিম মেদিনীপুর ও বীরভূমে ঝড় বৃষ্টির পূর্বাভাস জারি করা হয়েছে। যদিও মঙ্গলবারই আবহাওয়া দফতর সূত্রে জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল, ২১ জুনের আগে রাজ্যে বর্ষার কোনও সম্ভাবনা নেই। কিছু জায়গায় বৃষ্টি হলেও কমবে না গরম। তবে জুনের শেষেও কেন এরকম ভয়াবহ গরম সেই নিয়েও উঠছে প্রশ্ন। আবহাওয়াবিদরা জানাচ্ছেন, রাজ্যে বর্ষা ঢুকলেও বায়ুমণ্ডলে বৃষ্টিপাতের অনুকূল অবস্থা নেই। তবে সপ্তাহের শেষে দক্ষিণের জেলা গুলোতে মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে চলবে মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টিপাত। আজ থেকেই অল্প অল্প করে কমবে কলকাতা সহ জেলাগুলোর তাপমাত্রা। শহরবাসী একটু হলেও স্বস্তির নিশ্বাস ফেলবে সপ্তাহান্তে, এমনটাই জানাচ্ছেন আলিপুর আবহাওয়া দফতরের আধিকারিকরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here