ডেস্ক: বিজেপি শাসিত রাজ্যে গো-ভক্তির নিরিখে গেরুয়ার গোপন খাতায় যে রাজ্য গুলির নাম রয়েছে তার মধ্যে সবার উপরে অবশ্যই যোগীরাজ্য উত্তরপ্রদেশ। চুপিসাড়ে এই লড়াইয়ে যোগীরাজ্যের ঠিক পাশাপাশি রয়েছে বসুন্ধরা রাজের রাজস্থান। তবে সেরার শিরোপা পেতে হাল ছাড়ার পাত্রী নন বসুন্ধরা সরকার। ইতিমধ্যেই গরুর পাশাপাশি ষাঁড়েদের আতিথেয়তায় বেশ খানিকটা গেরুয়া সুনাম কুড়িয়েছে এই রাজ্য। এবার উত্তরপ্রদেশকে মোক্ষম চালটা দিতে নয়া সিদ্ধান্তের দিকে পা বাড়ালো বসুন্ধরা সরকার। গো-প্রেমে পাগল এই বিজেপি সরকার গরুর যত্ন নিতে আশ্রয় নিল মদের।

বিষয়টা একটু খোলসা করা যাক। সম্প্রতি, রাজস্থান সরকারের মন্ত্রী রাজেন্দ্র সিং রাঠোর সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, গরুর যত্ন নিতে মদের উপর উপ-কর লাগানোর প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে রাজস্থান সরকারের কাছে। এর ফলে মদ কেনার সঙ্গে সঙ্গে কিছু বাড়তি টাকাও খসাতে হবে মদের গ্রাহকদের, এবং সেখান থেকে বাড়তি যে টাকা উঠবে সেই টাকা খরচ করা হবে গরুর যত্নআত্তিতে। তবে মন্ত্রী রাজেন্দ্র সিংয়ের দেওয়া এই প্রস্তাবে চূড়ান্ত শিলমোহর দিতে এখনও বাকি। মুখ্যমন্ত্রী বসুন্ধরা রাজের উপর নির্ভর করছে এই প্রস্তাব পাশ হবে কিনা? তবে সূত্রের খবর নিজেদের গো-প্রেমের নমুনা বাকি বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলিকে বুঝিয়ে দিতে খুব শীঘ্রই পাশ হতে চলেছে এই প্রস্তাব।

উল্লেখ্য, রাজস্থানে ব্যাবসায়িক কর বা স্ট্যাম্প ডিউটির উপর ইতিমধ্যেই উপ-কর লাগিয়েছে বসুন্ধরা রাজের সরকার। সেখানে ১০ থেকে ২০ শতাংশ যে ব্যবসায়িক উপ-কর তোলা হয় তার পুরটাই খরচ করা হয় গো-সেবায়। কিন্তু গরুর আতিথেয়তায় তবুও বোধহয় কিছুটা খামতি থেকে যাচ্ছে রাজস্থানে। তাই এবার গো-সেবায় মদের উপরও উপ-কর লাগাতে চলেছে সরকার। এদিকে, গো-ভক্তদের দাবি, মদ খাওয়ার মতো পাপ কাজের কিছুটা হলেও প্রায়শ্চিত্ত হবে গো-সেবার মতো পূণ্য কাজে করের মাধ্যমে অর্থ দানে। তবে সামনেই রাজস্থানে বিধানসভা নির্বাচন, রাজ্যবাসীর পাপ খণ্ডাতে গিয়ে ভোটে কুপোকাত না হয়ে যান বসুন্ধরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here