kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, বারাসত: আইনজীবী রজত দে  হত্যাকাণ্ডে দোষী সাব্যস্ত স্ত্রী অনিন্দিতা পাল দে-কে  যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সাজা শোনাল বারাসত আদালত। বুধবার সাজা ঘোষণার পরে স্বাভাবিক ভাবেই মিশ্র প্রতিক্রিয়া বিভিন্ন মহলে। কলকাতা হাইকোর্টের আইনজীবী রজত দে হত্যাকাণ্ডে দোষী অনিন্দিতাকে আজীবন কারাবাসের নির্দেশ দিলেন বারাসত আদালতের ফার্স্ট ট্র্যাক থার্ড কোর্টের বিচারক সুজিতকুমার ঝা। গত সোমবারই অনিন্দিতাকে তার আইনজীবী স্বামী রজত দে-হত্যায় দোষী সাব্যস্ত করেছিল বারাসত আদালত।

প্রসঙ্গত, রজত দে-কে ২০১৮ সালের ২৫ নভেম্বর তার নিউটাউনের ফ্ল্যাটে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। তার কয়েকদিনের মধ্যেই ১ ডিসেম্বর পুলিশ তার আইনজীবী স্ত্রী অনিন্দিতাকে গ্রেফতার করে। বাইশ মাসের মধ্যে অনিন্দিতা পাল দে-কে দোষী সাব্যস্ত করে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সাজা শোনাল বারাসত আদালত।

আদালতের দেওয়া সাজার নির্দেশে খুশি রজত দে-র বাবা সমীর কুমার দে। সরকারি আইনজীবী বিভাস চট্টোপাধ্যায় সংবাদমাধ্যমকে বিচারকের নির্দেশের বিষয়টি জানিয়ে বলেন, ‘দু-বছরের কম সময়ে দোষী প্রমাণ করার প্রক্রিয়া শেষে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সাজা শুনিয়েছেন বিচারক’। অন্যদিকে, অভিযুক্তের আইনজীবী সোহিনী অধিকারী জানিয়েছেন, তাঁরা উচ্চতর আদালতে যাবেন।

উল্লেখ্য, বৈবাহিক সম্পর্ক থেকে সরে যেতে স্বামীকে বারবার চাপ দিচ্ছিল অনিন্দিতা। স্বামী বিবাহ বিচ্ছেদে রাজি না হওয়ায় চাদরের ওপর দিয়ে মোবাইল চার্জার জড়িয়ে চার্জারের তারে শ্বাসরোধ করে চৌত্রিশ বছরের লম্বা চওড়া চেহারার রজতকে খুন করে অনিন্দিতা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here