Parul

মহানগর ডেস্ক: শিল্পপতি রাজ কুন্দ্রার বিষয়টি নিয়ে শোরগোল পড়েছে বলিটাউনে। তাঁকে কোর্টে তোলা হলে তাঁর উকিল‌ আ্যপে প্রকাশ করা ভিডিও গুলিকে কুরুচিপূর্ণ ভিডিও বা পর্নগ্ৰাফিক ভিডিওর তকমা দিতে নারাজ। 

ads

 

বলি অভিনেত্রী শিল্পা শেঠির স্বামী রাজ কুন্দ্রাকে পর্নগ্ৰাফিক ছবি বানানো এবং তা আ্যপের মাধ্যমে প্রকাশ করার মূল ষড়যন্ত্রী হিসেবে গ্ৰেফতার করা হয়। মুম্ব‌ই পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চ তাঁকে গ্রেফতার করে। তাঁকে মুম্ব‌ই পুলিশের তরফ থেকে কোর্টে তোলা হলে তাঁর উকিল আবাদ পন্ডা জানায়, আ্যপে প্রকাশিত ভিডিওগুলি কোনোভাবেই  কুরুচিপূর্ণ নয়। এগুলিকে অসভ্য বলা চললেও পর্নোগ্ৰাফিক বলা চলে না। তিনি এ বিষয়ে আরও বলেন, ইনফরমেশন টেকনোলজি আ্যক্টের ধারা ৬৭ এ কখনোই এক্ষেত্রে লাগু হতে পারে না কারণ ইন্ডিয়ান পেনাল কোড অনুযায়ী, এই কনটেন্ট গুলিকে অসভ্য বলা চললেও পর্নোগ্ৰাফিক আখ্যা দেওয়া চলেনা। আইনের এই ধারায় বলা হয়েছে একমাত্র ‘যৌন সংসর্গ’ পর্নোগ্ৰাফিক কন্টেন্ট আর বাকি সব কুরুচিপূর্ণ ভিডিও বলা যেতে পারে। অন্যান্য আ্যপগুলির মত‌ই কুন্দ্রার আ্যপে প্রাপ্ত বয়স্কদের ভিডিও দেখানো হয়।

 

পুলিশ বর্তমানে বিভিন্ন ওয়েব সিরিজ কে অনুসরণ করছে। তাঁদের কনটেন্ট এবং কুন্দ্রার আ্যপের কনটেন্টের পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। দেখা হচ্ছে অন্যান্য ওটিটি প্ল্যাটফর্মে কি ধরনের কুরুচিপূর্ণ ভিডিও দেখানো হয়। 

 

 রাজের এক আত্মীয় প্রদীপ বক্সী ইংল্যান্ডে কেনরিন প্রোডাকশন হাউজ নামে একটি কোম্পানি চালান। ওই কোম্পানির চেয়ারম্যান পদে থাকার পাশাপাশি রাজেরও বিজনেস পার্টনার ছিলেন তিনি। রাজ এবং প্রদীপের হোয়াটস্অ্যাপ চ্যাটে পর্ন ছবি তৈরির জন্য টাকার লেনদেন-র কথা বার্তা ফাঁস করেছে পুলিশ।

 

সেদিন আগাম বেলের জন্য আবেদন করলেও, শুক্রবার পর্যন্ত‌ই তাঁকে পুলিশি হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here