বিজেপির শহীদ পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে বিতর্কত মন্তব্য রাজু বন্দ্যোপাধ্যায়ের

0
1127
kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, কোচবিহার: ‘কয়দিন পর আমরা ক্ষমতায় আসছি। তারপর পুলিশ যে সমস্ত ক্রিমিনালদের খুজে পাচ্ছে না সেই সব ক্রিমিনালরা শুধরে যাবে কি না জানি না তবে তাদের দাঁর করিয়ে করিয়ে মারব।’ সোমবার কোচবিহার এসে বিজপির শহিদ কর্মীদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে এমনটাই বললেন বিজেপি রাজ্য নেতা রাজু বন্দোপাধ্যায়। এদিন কোচবিহারে তিন জন শহিদ বিজেপি কর্মীদের বাড়ি গিয়ে দেখা করে তাদের পাশে থাকার আশ্বাস দেওয়ার পাশাপাশি কিছু আর্থিক সাহায্য তুলে দেয় কোচবিহার জেলা বিজেপি নেতৃত্ব। বিজেপি রাজ্য নেতা রাজু বন্দ্যোপাধ্যয়ের পাশাপাশি জেলা বিজেপি সভানেত্রি মালতি রাভা রায়, কোচবিহার জেলা বিজেপি সাধারন সম্পাদক সঞ্জয় চক্রবর্তী সহ জেলা নেতৃত্বরা উপস্থিত ছিলেন।

এদিন কোচবিহার জেলার যে তিন জন শহিদ বিজেপি কর্মীর বাড়ি গিয়ে দেখা করেন বিজেপি নেতৃত্বরা তাদের মধ্যে প্রথমেই ছিল নাটবাড়ি বিধানসভা কেন্দ্রের মারুগঞ্জ এলাকার বিজেপি কর্মী আনন্দ পাল। তাকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গিয়ে খুন করা হয়েছিল। এরপরে তারা যান কোচবিহার উত্তর বিধানসভার গোপালপুরের শহিদ বিজেপি কর্মী দুলাল ভৌমিকের বাড়িতে। অভিযোগ পঞ্চায়েত নির্বাচনের দিন ভোট দিতে গিয়ে দুষ্কৃতিদের হাতে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় দুলালবাবুর। একই সঙ্গে কোচবিহার দক্ষিন বিধানসভা কেন্দ্রের চান্দামারির প্রভাত মণ্ডলের পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন বিজেপি নেতৃত্বরা। পাশাপাশি তাদের পাশে থাকার আশ্বাস দেন তারা। কোচবিহার জেলা বিজেপি সভানেত্রি মালতি রাভা রায় এদিন বলেন, ‘আমরা শহিদ পরিবারের পাশে রয়েছি। আমি নিজে সব সময় এদের সমস্ত খোঁজ খবরনি। আমদের সাংসদ নিজে এসছিলেন। আজ রাজ্য নেতা রাজু বন্দ্যোপাধ্যায় এই পরিবারগুলোর সঙ্গে দেখা করলেন, তাদের পাশে থাকার আশ্বাস দিলেন। পুলিশ প্রশাসন এখানে একেবারে নির্বিকার ভুমিকা পালন করছে। আইনের উপর আমাদের ভরসা থাকলেও পুলিশের ওপরে একেবারে নেই। খুনিদের অপরাধীদের ধরা হচ্ছে না। কোচবিহার জেলা জুড়ে আইনশৃঙ্খলা বলে কিছু নেই। বিজেপির পক্ষ থেকে অভিযোগ জানানো হলেও কোন পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে না।’

শহিদ পরিবারগুলির সঙ্গে দেখা করে বিজেপি রাজ্য নেতা রাজু বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘বিজেপি সব সময় তাদের কর্মীদের পাশে দাঁড়ায়। মৃত্যুর মত কোন কিছুরই ক্ষতিপূরণ হয় না। আমরা এই পরিবারগুলোর পাশে দাঁড়াতে এসেছি। সব সময় তাদের পাশেই থাকব। পুলিশের সামনে তৃণমূলের গুন্ডারা ঘুরে বেড়াচ্ছে, অথচ পুলিশ কাউকে ধরতে পারছে না। তবে কয়েকদিন পর আমরা ক্ষমতায় এলে এদের দাঁড় করিয়ে করিয়ে মারব। পুলিশ এখন তৃণমূলের দালাল হয়ে গিয়েছে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here