amulya girl

 

Highlights

  • আসাদুদ্দিন ওয়েইসির জনসভায় ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’ বলে স্লোগান দিয়েছিল এক তরুণী
  • সেই তরুণী অমূল্যার এবার মাথার দাম ঘোষণা করল রাম সেনা
  • ওই তরুণীর বাবা বলেছেন, আমার মেয়েকে জেলে পচতে দিন

 

মহানগর ওয়েবডেস্ক: দিনকয়েক আগেই এআইএমআইএম নেতা আসাদুদ্দিন ওয়েইসির জনসভায় ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’ বলে স্লোগান দিয়েছিল এক তরুণী। যেই ঘটনার পর রাষ্ট্রদ্রোহিতার আইনে গ্রেফতারও করা হয়েছিল তাকে। কিন্তু বিতর্কের রেশ যেন কোনও ভাবেই কম হতে চাইছে না। বিতর্কের কেন্দ্রে থাকা সেই তরুণী অমূল্যার এবার মাথার দাম ঘোষণা করল রাম সেনা। সংশ্লিষ্ট সংগঠনের নেতা সন্দীপ মারাডি অমূল্যার মাথার দাম ১০ লক্ষ টাকা হিসেবে ঘোষণা করেছে।

ইতিমধ্যেই ওই তরুণীতে ১৪ দিনের বিচার বিভাগীয় হেফাজতে রাখা হয়েছে। রাম সেনার তরফে সেই দলের নেতা সন্দীপ মারাডি আর্জি জানিয়েছেন যে, এই নেত্রীকে যেন কোনও মতেই সরকার হেফাজত থেকে না ছেড়ে দেয়। তাঁর আরও দাবি, যদি রাজ্য বা কেন্দ্রীয় সরকার ওই তরুণীকে কোনও মতে জেল থেকে ছেড়ে দেয়, তাহলে ‘আমরা ওকে এনকাউন্টার করে হত্যা করব’। একই সঙ্গে তাঁর ঘোষণা, অমূল্যাকে যে খুন করতে পারবে তাকে ১০ লক্ষ টাকা দিয়ে পুরস্কৃত করবে আম সেনা।

অন্যদিকে এই ঘটনা আসাদুদ্দিন ওয়েইসির দল এআইএমআইএম-কে যথেষ্ট অস্বস্তির মধ্যে ফেলেছে। ওয়েইসি সাফাই দিয়ে পাল্টা জানিয়েছে যে ওই তরুণীর সঙ্গে তাঁর দলের কোনও সম্পর্ক নেই। হায়দরাবাদের সাংসদের কথায়, ‘আমি বা আমার দলের সঙ্গে ওর কোনও সম্পর্ক নেই। আয়োজকদের উচিত হয়নি ওকে এই অনুষ্ঠানে ডাকা। যদি জানতাম এরকম কিছু হবে আমি এখানে আসতামই না। আমরা ভারতের এবং কোনও ভাবেই পাকিস্তানকে সমর্থন করি না। আমার উদ্দেশ্যই হচ্ছে ভারতের আত্মাকে বাঁচিয়ে রাখা।’

এই ঘটনা পর ওই তরুণীর বাবা বলেছেন, আমার মেয়েকে জেলে পচতে দিন৷ পুলিশ মারের চোটে পা ভেঙে ফেলুক৷ আমার কোনও দুঃখ হবে না৷ কারণ আমার মেয়ে পরিবারকে অনেক যন্ত্রণা দিয়েছে৷ এই ঘটনার পর বজরং দলের কর্মীরা তাঁর বাবার সঙ্গে দেখা করেন৷ সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘুরছে৷

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here