Ranji Trophy 2019-20 Final, Saurashtra vs Bengal Preview
রাত পোহালেই রঞ্জি ফাইনাল, পূজারাদের বিরুদ্ধে তিন পেসার ও দুই স্পিনারের ভাবনায় বাংলা

মহানগর ওয়েবডেস্ক: রাত পোহালেই রঞ্জি ট্রফির ফাইনাল৷ রাজকোটে খেতাবি জয়ের লড়াইয়ে অভিমন্যু ঈশ্বরনের বাংলা ও জয়দেব উনাদকাটের সৌরাষ্ট্র৷ ৩১ বছর আগে শেষবার রঞ্জি ট্রফি এসেছিল বাংলায়৷ ১৯৮৯-৯০ মরশুমে বাংলাকে ভারতসেরা করেছিলেন সম্বরণ বন্দ্যোপাধ্যায়৷ জয়ের অন্যতম কাণ্ডারি এখন বাংলার কোচ৷ অন্যদিকে সৌরাষ্ট্র শেষ সাত বছরে চারবার ফাইনালে উঠেও কাপ তুলতে পারেনি৷ ঘরের মাঠ সেই সুযোগ হাতছাড়া করতে চায় না তারা৷

বাংলা ও সৌরাষ্ট্র, দু’দলই ফাইনালে পাচ্ছে বাড়তি অ্যাডভান্টেজ৷ জাতীয় টেস্ট দলের দুই নিয়মিত স্টার থাকছেন টিমে৷ বাংলার হয়ে খেলছেন উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান ঋদ্ধিমান সাহা৷ উনাদকাটদের ব্যাটিং লাইন-আপে শক্তি জোগাবেন চেতেশ্বর পূজারা৷ নিউজিল্যান্ড থেকে ফিরেই দলে যোগ দিয়েছেন তাঁরা৷ ঋদ্ধির উপস্থিতিই দলকে বাড়তি অক্সিজেন দেবে বলেই মনে করছেন বাংলার ক্যাপ্টেন অভিমন্যু ও কোচ অরুণ লাল৷

ফাইনাল ম্যাচ নিয়ে বাড়তি কোনও চাপ নিচ্ছেন না অরুণ লাল৷ তিনি বলছেন, “প্লেয়াররা প্রত্যেকেই পুরোপুরি ফিট৷ ড্রেসিংরুমের পরিবেশটা আর বাকি পাঁচটা ম্যাচের মতোই৷ আমারা রেজাল্ট নিয়ে নয়, নিজেদের শক্তি নিয়ে ভাবছি৷ এই মরশুমে আমরা যে ক্রিকেটটা খেলে এসেছি সেটাই খেলব৷ এটাই আমাদের শক্তি৷ ঋদ্ধিকে পেয়ে আমরা সত্যিই খুশি হয়েছি৷ ও ভীষণ ভাল একজন মানুষ৷ প্রকৃত টিম ম্যান৷ একজন ফাইটার৷ দলকে নৈতিক ভাবে সমৃদ্ধশালী করবে ও৷” ফাইনালে ভাল উইকেটের আশা করছেন অরুণ লাল৷ পাশাপাশি বলে দিচ্ছেন যে, পূজারাকে নিয়ে আলাদা করে গুরুত্ব দিচ্ছে না তাঁর দল৷ তাঁর বক্তব্য, “আমরা আলাদা করে কাউকে নিয়ে ভাবছি না৷ ইতিবাচক ক্রিকেট খেলাই আমাদের লক্ষ্য৷ কোনও একজন একটা টুর্নামেন্ট বা ফাইনাল জেতাতে পারে না৷ পূজারা ছাড়াও দলে বাকি আরও ১০ জন রয়েছে৷ ১১ জন মিলেই জেতায়৷”

ঈশান পোড়েল, মুকেশ কুমার, আকাশ দীপদের নির্বিষ করার উদ্দেশ্যেই বাংলার বিরুদ্ধে একদম ব্যাটিং সহায়ক পিচ বানানো হয়েছে সৌরাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে৷ অভিমন্যু বলছেন তাঁরা খেলার জন্য মুখিয়ে রয়েছেন৷ দু’দিনের প্রস্তুতিতে তাঁদের পিচের সম্বন্ধে একটা ধারনা তৈরি হয়ে গিয়েছে৷ তিনি বলছেন, “আমরা তিন পেসার ও দুই স্পিনারকে নিয়েই খেলার কথা ভাবছি আপাতত৷ আগামিকাল সকালে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেব৷” অন্যদিকে ঋদ্ধিকে দলে পাওয়ার প্রসঙ্গে অভিমন্যু বলছেন, “ঋদ্ধি ওর অভিজ্ঞতা দিয়ে দলকে সাহায্য করবে৷ ও অনেক বড় ম্যাচ খেলেছে৷ আমাদের টিমে ব্যাটে আর গ্লাভসে অবদান রাখতে পারবে৷”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here