নিজস্ব প্রতিবেদক, বারুইপুর : মদ্যপ অবস্থায় গৃহশিক্ষিকাকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে গ্রেফতার দম্পতি। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে বারুইপুরের হরিদেবপুর এলাকায়।

গৃহপ্রবেশের অনুষ্ঠানে মেয়ের শিক্ষিকাকে নেমন্ত্রণ জানিয়ে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ উঠল ছাত্রীর বাবার বিরুদ্ধে। জানা গিয়েছে, সোমবার রাতে গৃহপ্রবেশের অনুষ্ঠান শেষ হয়ে গেলে ওই গৃহশিক্ষিকার সামনেই মদ্যপান করে অভিযুক্ত ও তার স্ত্রী। তারপর স্ত্রী ঘুমিয়ে পড়লে মেয়ের গৃহশিক্ষিকাকে ধর্ষণের চেষ্টারও অভিযোগ ওঠে ছাত্রীর বাবার বিরুদ্ধে।

গত এক বছর ধরে প্রতিবেশী সুশান্ত সাহার পাঁচ বছরের মেয়েকে পড়াতেন তৃতীয় বর্ষের কলেজ ছাত্রী তথা এক গৃহশিক্ষিকা। সোমবার রাতে গৃহপ্রবেশের অনুষ্ঠানে মেয়ের শিক্ষিকাকে নেমন্ত্রণ করেন অবিভাবক সুশান্ত। আর সেখানেই গিয়ে ঘটে চরম বিপত্তি । ছাত্রীর বাবার হাতে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতিত হতে হয় গৃহশিক্ষিকা ওই তরুণীকে। নিগৃহীতা গৃহশিক্ষিকা তরুণীর দাবি, গৃহপ্রবেশের অনুষ্ঠান শেষে গৃহশিক্ষিকাকে রাতে থেকে যেতে বলে সুশান্ত সাহা ও তাঁর স্ত্রী জ্যোতি সাহা। অভিযোগ, এরপরেই গৃহশিক্ষিকার সামনেই সুশান্ত সাহা ও তাঁর স্ত্রী জ্যোতি সাহা মদ্যপান করেন। দম্পতিকে ওই অবস্থায় দেখে অন্য ঘরে চলে যান তরুণী। অভিযোগ, জ্যোতি সাহা ঘুমিয়ে পড়লে, ছাত্রীর বাবা তাঁকে পিছন থেকে জড়িয়ে ধরে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। সেখান থেকে কোনওক্রমে পালিয়ে আসেন গৃহশিক্ষিকা। এর বারুইপুর থানায় ঘটনার বিবরণ দিয়ে ছাত্রীর বাবা ও মায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন ওই গৃহশিক্ষিকা। তরুণীর অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেফতার করা হয়েছে ছাত্রীর বাবা সুশান্ত সাহা ও তাঁর স্ত্রীকে। মঙ্গলবার দম্পতিকে বারুইপুর মহকুমা আদালতে তোলা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here