ডেস্ক: বাবা রাম রহিম ও আসারাম বাবুর পর ধর্ষণের অভিযোগ উঠল দিল্লির শনিধাম মন্দিরের প্রতিস্থাপক দাতি মহারাজের বিরুদ্ধে। এক মহিলা তাঁর বিরুদ্ধে ধর্ষণের চাঞ্চল্যকর অভিযোগ তুললেন। অভিযোগ তুলে তাঁর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগও দায়ের করেছেন ওই মহিলা।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মহিলার অভিযোগের ভিত্তিতে দাতি মহারাজের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধি ৩৫৪, ৩৭৬ ৩৭৭ ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে। মহিলার দাবি, ২ বছর আগে মন্দিরের ভিতরেই তাঁর সঙ্গে বলপূর্বক সঙ্গমে লিপ্ত হয়েছিলেন দাতি মহারাজ। নির্যাতিতার আরও দাবি, যৌন সম্পর্ক স্থাপনের পর কাউকে তা জানাতেও হুমকি দিয়েছিলেন তিনি। অন্যদিকে, নির্যাতিতার পিতা জানিয়েছেন, দাতি মহারাজের নির্দেশ অনুসারে তাঁর আশ্রমে রেখে গিয়েছিলেন তিনি নিজের মেয়েকে।

অভিযোগে নির্যাতিতা পুলিশকে জানিয়েছেন, দাতি মহারাজের কথা শুনতে নিয়মিত তিনি তাঁর আশ্রমে যেতেন। বেশ কিছুদিন যাওয়ার পর অন্য এক আশ্রমিকের মাধ্যমে ওই নির্যাতিতাকে আলদাভাবে দেখা করতে বলেন দাতি মহারাজ। তারপর থেকেই শুরু আশ্রমের ভিতরই শুরু হয় যৌন নিপীড়ন। এমনকি মানসিক রূপেও তাঁকে প্রতারণা করা হয় এবং পুলিশকে না জানানোর জন্য বারবার হুমকি দেওয়া হয় বলে জানান তিনি।

এই অভিযোগ দায়ের হওয়ার পর থেকেই দিল্লির আশ্রম থেকে বেপাত্তা অভিযুক্ত দাতি মহারাজ। মহারাজ ছাড়াও আরও তিন ব্যক্তির নাম রয়েছে এই অভিযোগ পত্রে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ ইতিমধ্যেই তাঁকে তলব করেছে বলে খবর সংবাদ সূত্রে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here