মহানগর ওয়েবডেস্ক: ধর্ষণের অভিযোগে দীর্ঘ দিন জেল বন্দি থাকার পর সম্প্রতি জামিনে মুক্তি পেয়ে গ্রামে ফিরে ফের মস্তানি শুরু করেছিল অভিযুক্ত। তারই পাল্টা দিয়ে অভিযুক্ত ওই ধর্ষককে পিটিয়ে খুন করল উন্মত্ত জনতা। সোমবার ঘটনাটি ঘটেছে প্রতিবেশী ঝাড়খন্ড রাজ্যের সিমডেগা জেলার রেম্বাড়ি গ্রামে। এই ঘটনায় রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

জানা গিয়েছে গ্রামেরই এক যুবতীকে ধর্ষণের অভিযোগে দীর্ঘ ৭ মাস ধরে জেলবন্দি ছিল রেম্বাড়ি গ্রামের বিনীত লকরা নামে এক যুবক। গত মাসে জামিনে মুক্তি পায় সে। জেল থেকে ছাড়া পেয়ে গ্রামে ফিরে আসার পর ফের এলাকায় দাপট দেখাতে শুরু করে অভিযুক্ত। ধর্ষিতার পরিবারকে হুমকির পাশাপাশি তার বিরুদ্ধে যাওয়া গ্রামবাসীদের মারধর ও ভয় দেখাতে শুরু করে বিনীত। বেশ কিছুদিন ধরে এই ঘটনা চলার পর। গত সোমবার রাতে বিনীত থেকে তার নিজের বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায় বেশ কয়েকজন গ্রামবাসী। এরপর মঙ্গলবার ঘটনাস্থল থেকে দুই কিলোমিটার দূরে এক জঙ্গলের মধ্যে উদ্ধার করা হয় বিনীতের মৃতদেহ।

পুলিশ সূত্রে জানা যাচ্ছে, গণপিটুনি দিয়ে হত্যা করা হয়েছে বিনীত নামের ধর্ষণে অভিযুক্ত ওই যুবককে। এবং সোমবার রাতে যারা বিনীতকে ডেকে নিয়ে গিয়েছিল তার বাড়ি থেকে সেই দলে ছিল ধর্ষিতার পরিবারের সদস্যরা। ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ। ধর্ষিতার পরিবারের সদস্যদের পাশাপাশি গ্রামের ৮ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। যদিও এই ঘটনাকে অপরাধ হিসেবে দেখতে নারাজ স্থানীয় মানুষজন। গ্রামবাসীদের স্পষ্ট বক্তব্য ধর্ষণের শাস্তি গণপিটুনি হওয়াই উচিত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here