ডেস্ক: ঘরে বউ থাকলেও আরেকটা মেয়েকে বিয়ে করতে দোষ কোথায়? এমনটাই মনে হয়েছিল তুলাসাই গ্রামের প্রভাবশালী পরিবারের এক জনের ৷ প্রভাব প্রতিপত্তিতে গ্রামের সবাই তাদের রীতিমতো ভয়ে কাঁপে৷ ভেবেছিল, প্রস্তাব দিলেই সুড় সুড় করে মেয়েকে তাঁর হাতে সঁপে দেবে তার বাড়ির লোকেরা৷  আর তারপরই রম্ভা নামে মেয়েটির বাবাকে সোজা গিয়ে প্রস্তাব দিয়েছিল সে৷ কিন্তু প্রস্তাব শুনে মুখের ওপর সোজা না করে দিয়েছিলেন রম্ভার বাবা৷ ওই না করাটাই কাল হল তাঁদের৷ পরিবারের পাঁচ জনকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে খুন করে কাছাকাছি জঙ্গলে পুঁতে দেয় ওই প্রভাবশালী পরিবারের লোকেরা৷

মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে ঝাড়খণ্ডের পশ্চিম সিংভূম জেলায়৷ যদিও খুন করার ঘটনাটি ঘটেছিল গত মাসের ১৪ তারিখে, কিন্তু পচে যাওয়া দেহগুলি উদ্ধারের পর ঘটনাটি প্রকাশ্যে এসেছে৷ মৃতদের নাম রাম সিং শিরকা, তাঁর স্ত্রী পানু কুই, যাকে বিয়ে করার কথা ছিল, সেই রম্ভা, রাম সিংয়ের দুই ছেলে কান্ডে ও সোন্যা৷ অতিরিক্ত এসপি( কিরিবুরু) তারিক আলম এ খবর জানিয়েছেন৷

এই ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ৷ বাকিদের খোঁজে তল্লাশি চালানো হচ্ছে ৷ তবে তাদের ধারণা, বাকি অভিযুক্তরা অন্য রাজ্যে পালিয়ে গিয়েছে৷ পুলিশ জানিয়েছে, গুয়া থানা এলাকার তুলাসাই গ্রাম থেকে তিন কিলোমিটার দূরের জঙ্গলে রম্ভার বাবা রাম সিং শিরকার পচাগলা দেহ পাওয়া যায়৷ ২৭ মার্চ আরেকটি জঙ্গল থেকে বাকিদের দেহ খুঁজে পায় পুলিশ৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here