ডেস্ক: প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীর মৃত্যুর প্রায় ২৭ বছর পর আচমকা চাঞ্চল্যকর দাবি লিবারেশন টাইগার অফ তামিল ইলামের (এলটিটিই)। এক বিবৃতির মাধ্যমে সংগঠনের তরফে জানানো হয়েছে, রাজীব গান্ধী হত্যাকাণ্ডের পেছনে তাদের কোনও ভূমিকা নেই। প্রসঙ্গত, ১৯৯১ সালের মে মাসে এক আত্মঘাতী হামলায় মৃত্যু হয় তৎকালীন প্রধানমন্ত্রীর। প্রাথমিকভাবে এই ঘটনায় দক্ষিণী সংগঠন এলটিটিই-র নাম জড়ালেও এতদিন বাদে সেই অভিযোগ ঘাড় থেকে ঝেড়ে ফেলল তারা।

প্রকাশিত বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেছেন এলটিটিই নেতা কুরবুরান গুরুস্বামী এবং লাথান চন্দ্রলিঙ্গম। সেই বিবৃতির মাধ্যমে জানানো হয়েছে, ভারতের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর মৃত্যুর ঘটনায় এলটিটিই কোনও ভাবেই দায়ি নয়। তামিল ইলাম সংগঠনের বক্তব্য, আগেও বহুবার বলা হয়েছে আমাদের কোনও ভূমিকা নেই এই ঘটনায়। তা সত্ত্বেও একটি অসত্য অভিযোগ প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে। তামিল সংগঠনের আরও দাবি, ভারতের কোনও নেতাদের ক্ষতি করতে চায়নি এলটিটিই।

শ্রীলঙ্কার বাইরে অন্য কোনও দেশ, বা শ্রীলঙ্কা রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বদের ছাড়া তাদের টার্গেট কখনই কেউ ছিল না। কেবল রাজীব গান্ধী নন, ভারতের অন্য কোনও জাতীয় স্তরের নেতাদেরও কখনই নিশানায় নেয়নি এলটিটিই। বরং ভারত সরকার ও এলটিটিই-র মধ্যে ভালো সম্পর্কে ভাঙন ধরাতে, এবং দেশে অস্থির অবস্থা তৈরি করতে ষড়যন্ত্র করে রাজীবকে তৃতীয় কোনও পক্ষ হত্যা করে বলে দাবি করেছে লিবারেশন টাইগার অফ তামিল ইলাম।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here