নিজস্ব প্রতিবেদক, শিলিগুড়ি: একই পরিবারের চার সদস্যের অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়াল এলাকার৷ ঘটনাটি ঘটেছে শিলিগুড়ি পুলিশ কমিশনারেটের অন্তর্গত ভক্তিনগর থানার আশিঘর পুলিশ ফাঁড়ি এলাকার পাপিয়াপাড়ায়৷ মৃতদের নাম বাসুদেব পাল, ললিতা পাল এবং তাঁদের দুই সন্তান বিবেক পাল ও সীমা পাল। ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বাসুদেববাবু ও ললিতাদেবীর দুই সন্তান বিবেক এবং সীমা পরিবারে একসঙ্গেই থাকতেন৷ শনিবার তাদের বাড়ি থেকে কাউকে বেরোতে না দেখে প্রতিবেশীদের সন্দেহ হয়৷ ঘরে ঢুকে তারাই প্রথমে বাসুদেববাবুর ঝুলন্ত মৃতদেহ দেখেন৷ এরপর তাঁর স্ত্রীর মৃতদেহ দেখতে পান তারা৷ বিছানার ওপর তাঁদের দুই সন্তানের নিথর দেহ পড়ে ছিল। খবর দেওয়া হয় থানায়৷ পুলিশ এসে চারটি মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শিলিগুড়ি জেলা হাসপাতালে পাঠায়৷

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, পারিবারিক কলহ কিংবা ঋণ থেকে মানসিক অবসাদে পরিবারের চার সদস্য আত্মঘাতী হয়েছেন৷ দম্পতির মৃত্যুর আগে দুই সন্তানকে শ্বাসরোধ করে খুন করা হয়েছে বলে পুলিশের দাবি৷ প্রতিবেশীরা জানান, মাঝেমধ্যেই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে অশান্তি হত। তবে তার এমন ভয়ঙ্কর পরিণতি হবে, তা ভাবতেই পারছেন না তাঁরা। তবে এটি আত্মহত্যা না খুন, তা জানতে পুলিশ ঘটনার বিস্তারিত তদন্ত শুরু করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here