Home Featured রিয়া নিজেই জানালেন, সুশান্ত সিং–এর একটি দিক তিনি নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করেছিলেন

রিয়া নিজেই জানালেন, সুশান্ত সিং–এর একটি দিক তিনি নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করেছিলেন

0
রিয়া নিজেই জানালেন, সুশান্ত সিং–এর একটি দিক তিনি নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করেছিলেন
Parul

মহানগর ওয়েবডেস্ক: সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর তার ওপর যে মানসিক অত্যাচার চলছে সেটা নেওয়া তার পক্ষে অসহ্য হয়ে উঠছে বলে সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি–কে জানালেন প্রয়াত অভিনেতার ‘বান্ধবী’ রিয়া চক্রবর্তী। একটি সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, তিনি ও তার পরিবার সম্পূর্ণ ভাবে ভেঙে পড়েছেন। সুশান্তের বাবার করা অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি জানান, ‘’এটা অত্যন্ত বেদনার যে যার জীবনে এতবড় একটা ক্ষতি হয়ে গিয়েছে তিনি বুঝতে পারছেন না আমার কতটা ক্ষতি হয়েছে। আমি ওনার ছেলেকে ভালোবাসতাম, মানবিকতা বলে কি কিছু নেই? আমি ওনার ছেলেকে দেখভাল করতাম। অত্যন্ত একটু মানবিক হোন, ওর (সুশান্ত) বান্ধবী হিসেবে যদি আমাকে পছন্দ না হয়ে থাকে তাহলেও অন্তত ওর প্রতি আমার ভালোবাসাকে একটু সম্মান জানান।

অপরাধী খোঁজার নামে একটা সরল সাদাসিধে মধ্যবিত্ত পরিবারকে ধ্বংস করে দেওয়া হচ্ছে জানিয়ে রিয়া বলেছেন, একটা গল্পের সবসময় দুটো দিক থাকে। ‘’এতদিন ধরে আপনারা মাত্র একটি দিকের কথা শুনেছেন। যাকে আমি ভালোবাসতাম, যাকে ছাড়া বেঁচে থাকাটা আমার পক্ষে কষ্টকর, তার সঙ্গে এসব করার আমার দিক থেকে কোনও উদ্দেশ্য থাকতে পারে না। দয়া করে যুক্তি দিয়ে বোঝার চেষ্টা করুন।‘’

বলিউড তারকা সুশান্ত সিং রাজপুতের বান্দ্রার ফ্ল্যাটে ১৪ জুন অভিনেতার দেহ গলায় দড়ি লাগানো অবস্থায় ঝুলতে দেখা যায়। তারপর থেকেই ‘হত্যা’ না ‘আত্মহত্যা’ তাই নিয়ে সারা দেশ জুড়ে বিতর্কের ঝড় ওঠে। বিগত দু’মাস ধরে চলা সেই বিতর্ক নতুন মোড় নেয় যখন অভিনেতাকে বিষ প্রয়োগ করার অভিযোগ সামনে আসে। গত দু’দিন ধরে এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে ড্রাগচক্রের উপস্থিতির অভিযোগ।

রিয়া চক্রবর্তী সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া তার সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন সুশান্ত ‘’ ছিলেন একজন চমৎকার ছেলে যে সবসময় দুনিয়াটাকে বদলে দেওয়ার স্বপ্ন দেখত।‘’ তার সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি করে তার বান্ধবী আদৌ অনুতপ্ত নন। ‘’আমাদের সম্পর্কটা ছিল সিনেমার মতো, রূপকথার মতো’’ বলে রিয়া জানান অভিনেতাকে ছাড়া তার পক্ষে বেঁচে থাকাটা কষ্টকর হয়ে উঠেছে। রিয়া আরও জানিয়েছেন, ‘’ওর (সুশান্ত’র) ১৫০টা স্বপ্ন ছিল… তার মধ্যে একটা হল আর্টিফিসিয়াল ইন্টালিজেন্স তৈরি করা, বাচ্চাদের জন্য কিছু করা।‘’

সম্পর্কটা শেষ হয়েছিল কিছুটা তিক্ততার মধ্যে দিয়ে। ঠিক কী হয়েছিল জানাতে গিয়ে রিয়া সাক্ষাৎকারীকে বলেন, ৮ জুন সুশান্ত তাকে বাড়ি ছেড়ে চলে যেতে বলেন। ‘’জানুয়ারি মাসেও ও আমাকে চলে যেতে বলেছিল কিন্তু তার পরদিনই আবার আমাকে ফিরে আসতে বলে। আমি ভেবেছিলাম এবারও (৮ জুন) সেটাই করবে। কিন্তু ও আর আমাকে ডাকেনি। ও আমাকে ফিরে পাওয়ার জন্য কিচ্ছু বলেনি।‘’

সিবিআই, ইডি এবং এখন নারকোটিক কন্ট্রোল ব্যুরো যৌথ ভাবে অভিনেতার মৃত্যু রহস্যের সমাধানে তদন্তে নেমেছে। এমনকি এক মন্ত্রী বিষয়টির সঙ্গে সন্ত্রাসবাদীদের যোগসাজশের সম্ভাবনার কথাও উল্লেখ করেছেন। এই প্রসঙ্গে রিয়া চক্রবর্তী বলেছেন, ‘’আপনারা আমার পরিবারের সঙ্গে কী করছেন? আমরা আইন মেনে চলা নাগরিক। আমার মা মানসিক ভাবে সম্পূর্ণ ভেঙে পড়ার মুখে এসে দাঁড়িয়েছেন। আমার বাবা, যিনি দেশের সেবা করেছেন তাকে মানষিক ও শারীরিক ভাবে কোণঠাসা করে দেওয়া হয়েছে। আমাদের দেশের আইনের প্রতি আস্থা আছে বলেই এখনও পর্যন্ত আমরা আত্মহত্যা করিনি। আমাদের একটাই দোষ, আমরা সকলে একটি ছেলেকে ভালোবেসেছিলাম।‘’

তিনি গ্রেফতার হওয়ার ভয়ে ভীত কিনা জানতে চাইলে সাক্ষাৎকারীকে তিনি বলেন, ‘’আমার মনে হয় না আমি গ্রেফতার হব। আমি গ্রেফতার হওযার মতো কিছু করিনি।’’ ড্রাগের প্রসঙ্গে রিয়া জানান, সুশান্ত শিং রাজপুত মারিজুযানা নিতেন এবং  অভিনেতার জীবনের এই একটি দিকই তিনি নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করেছিলেন। তিনি কোনওদিন ড্রাগ নেননি বা ড্রাগচক্রের কারও সঙ্গে তার কোনও পরিচয় নেই বলে তিনি জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here