news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ছেলে রণবীরের পাশাপাশি মেয়ে ঋদ্ধিমাকে একটু বেশি ভালোবাসতেন ঋষি কাপুর। আর সেই কারণেই বাবাকে দেখতে প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়েছিলেন মেয়ে ঋদ্ধিমা। ঋষি কাপুরের কন্যা বিয়ের পর দিল্লিতে শ্বশুরবাড়িতে থাকেন।

বাবার আকস্মিক শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার সংবাদ পেয়ে দিল্লি থেকে মুম্বই আসার জন্ প্রশাসনের কাছে আবেদন জানান ঋদ্ধিমা কাপুর। আর ঋদ্ধিমার একান্ত অনুরোধে দিল্লি ও মুম্বই প্রশাসনের উদ্যোগে বাবাকে শেষবারের মতো দেখার জন্য লকডাউনের মধ্যেও ছাড় দেওয়া হল ঋষি কন্যাকে।

সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রের খবর,দিল্লি থেকে নিজস্ব গাড়িতে রওনা দিয়েছিলেন ঋদ্ধিমা ও তার বাড়ির লোকজন। লকডাউন লাগু থাকায় নিজস্ব গাড়িতেই মুম্বই আসার অনুমতি দিয়ছিল প্রশাসন। দীর্ঘ ১৪০০ কিলোমিটার রাস্তা অতিক্রম করে মুম্বই আসেন ঋষি কন্যা। ঋদ্ধিমা চার্টাড বিমানের দাবি করলেও তা অনুমোদন করেনি প্রশাসন। মূলত কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের হাতে এই অনুমতি থাকায় অগত্যা নিজের গাড়িতেই মুম্বই এসেছেন রণবীরের বোন। এদিন মুম্বইয়ের চন্দনওয়ারিতে শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়।

এদিন বাবা ঋষি কাপুরের প্রয়াণে সোশ্যাল মিডিয়াতে একটি বিশেষ বার্তা দেন ঋদ্ধিমা। তিনি জানান, “বাবা আমি তোমায় খুব ভালোবাসি, তুমি একজন যোদ্ধা, যুদ্ধ করেছো। তোমার অভাব বোধ করব প্রতিদিন। রোজ তোমার সঙ্গে ভিডিয়ো কলে কথা বলা মিস করব। যতক্ষণ না আমাদের আবার দেখা হয়। ইতি তোমার মুস্ক।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here