মহানগর ওয়েবডেস্ক: মুখে লেগে রয়েছে চির পরিচিত সেই হাসি। পাশে খালি গলায় এক যুবক সুর বাঁধছেন, ‘তেরে দর্দ সে দিল আবাদ রহা, কুছ ভুল গ্যায়ে কুছ ইয়াদ রাহা।’ মৃত্যুশয্যায় হাসপাতালের বেডে শুয়ে অপরিচিত যুবকের গলায় চিরপরিচিত গান মুগ্ধ হয়ে শুনছেন ঋষি। শরীরী ভাষায় এক প্রশান্তির ছাপ। মাঝে মাঝে চোখ মুছছেন, যেন শেষ সময়ে অতীত বার বার পিছু ডাক দিচ্ছে তাঁকে। মৃত্যুশয্যায় এটাই ছিল ঋষি কাপুরের শেষ ভিডিও। আর এই ভিডিও সম্প্রতি ভাইরাল হয়ে উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

প্রথমে ইরফান খান তারপর ঋষি কাপুর। পর দুই দিনে রুপোলি পর্দার দুই মহানক্ষত্রের পতন দেখেছে দেশ। ক্যান্সারের বিরুদ্ধে দীর্ঘ লড়াইয়ের পর অবশেষে হার মেনেছেন তারা। তাদের মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ গোটা দেশ। জানা যায় হাসিখুশি, দিলখোলা ঋষি কাপুর নাকি শেষ মুহূর্তেও হাসিয়ে গিয়েছেন হাসপাতালে নার্সদের। মুম্বইয়ের বেসরকারি হাসপাতালে শেষ মুহূর্তে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়া ঋষির এই ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। যদিও জানা যায়নি ঋষি কাপুরের পাশে গান গাওয়া ওই যুবকটির পরিচয়। অনুমান করা হচ্ছে তিনি হয়তো হাসপাতালেই কোনও এক কর্মী, ঋষি কাপুরের গুণমুগ্ধ অনুরাগী। নিখুঁত সুরে প্রিয় গান শুনে অপরিচিত ওই যুবককে প্রাণভরে আশীর্বাদ করে গিয়েছেন ঋষি কাপুর। গান শুনে কান্না ভেজা ধরা গলায় ওই যুবককে তিনি বলছেন, ‘অনেক বড় হও, কষ্ট করো কর্ম কর জীবনে তুমি সাফল্য পাবেই।’

প্রসঙ্গত, গত বুধবার রাতে মুম্বইয়ের এক বেসরকারি হাসপাতালে শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে আইসিইউ–তে ভর্তি হন ঋষি কাপুর। বৃহস্পতিবার সকালে হাসপাতালেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন বর্ষীয়ান এই অভিনেতা। তবে মৃত্যুর আগেও শেষ বার্তায় অনুগামীদের মন জয় করে গেলেন প্রিয় অভিনেতা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here