ডেস্ক: পুজোর ছুটিতে শিমলা বেড়াতে গিয়ে মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারাল বনগাঁর চাঁদপাড়ার যুবক বিশ্বজিৎ দাস। রবিবার খাদে গাড়ি উলটে পড়েই এই দুর্ঘটনাটি ঘটেছে বলে জানা গিয়েছে। এছাড়াও গাড়ির মধ্যে থাকা চালক সহ ওই যুবকের পরিবারের আরও ১০ জন গুরুতর জখম হয়েছে। সকলেরই বাড়ি উত্তর ২৪ পরগণায়।

সূত্রের খবর চাঁদপাড়ার ওই পরিবার সপ্তমীর দিন মধ্যমগ্রামের নন্দনকানন থেকে মানালি যাওয়ার উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছিলেন। ওই পর্যটকদের মধ্যে দুই দম্পতিও ছিল। শনিবার তারা সকলেই মানালির কাছে একটি হোটেলে উঠেছিলেন। এরপরই সেখান থেকেই রোটাং পাস যাওয়ার পথে সকাল সাড়ে ১১ টা নাগাদ দুর্ঘটনার কবলে পড়েন ওই পরিবার। আচমকা গাড়িটি খাদে পড়ে যায়। ওই গাড়ির সামনের সিটেই বসে ছিলেন বিশ্বজিৎ দাস নামের ওই যুবক। এরপর গাড়িটি খাদে পড়ার সঙ্গে সঙ্গেই ওই যুবক ছিটকে পড়ে যায়। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তাঁর। ঘণ্টাখানেক পর উদ্ধারের কাজ শুরু করে স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন। উদ্ধারের সময় দেখা যায়, খাদে পাথরের খাঁজে আটকে গিয়েছে গাড়িটি। তখনও সেই গাড়ির মধ্যে আটকে ছিলেন বাকিরা। তাদের সকলকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে।

দুর্ঘটনায় আক্রান্তদের উদ্ধারের পর তাদের শিমলার স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পাশাপাশি তাদের পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা যোগাযোগ করেন মধ্যমগ্রাম পুরসভার এক কাউন্সিলরের সঙ্গে। এরপরেই পরিবারের সদস্যদের বিমানে হিমাচল প্রদেশ পাঠানোর বন্দোবস্ত করা হয় বলে জানা গিয়েছে। মৃত ও আহতরা সকলেই বেসরকারি সংস্থায় কর্মরত বলে জানা গিয়েছে। পুজোর রেশ কাটতে না কাটতেই এমন একটি ঘটনায় গভীর শোকের ছায়া নেমে এসেছে চাঁদপাড়ার দাস পরিবারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here