মহানগর ডেস্কঃ যে কোনও সময় আকাশ থেকে নেমে আসতে পারে মিশাইল। চোখের নিমেষে গুঁড়িয়ে যাচ্ছে চোখের সামনে থাকা বহুতল। প্রাণ হারিয়েছেন বহু সাধারণ মানুষ। রাতের আকাশে জোনাকির মতো ঝাঁকে ঝাঁকে উড়ে আসছে রকেট। ইজরায়েল সেনার বিরুদ্ধে হার মানতে নারাজ হামাস।

সম্প্রতি কিছু প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে হামাস গোষ্ঠীর কাছে রয়েছে ১৫ ধরণের মিশাইল। স্বল্প পাল্লা থেকে লং রেঞ্জার, সমস্ত রকমের মিশাইল মজুত রয়েছে তাদের কাছে। হামাসের কিছু রকেট ইজরায়েলের শক্তিশালী আয়রন ডোম অ্যান্টি মিসাইল সিস্টেমকে ফাঁকি দিয়ে আঘাত হেনেছিল তেল আবিব-সহ বেশ কয়েকটি শহরে। ইসরায়েলকে লক্ষ্য করে অন্তত ১৩০টি রকেট ছোঁড়া হয়েছে হামাসের পক্ষ থেকে।

জার্মানের স্ট্যাটিস্টা নামের এক সংস্থার পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, হামাসের কাছে রয়েছে অন্তত ১৫ ধরণের রকেট। সংখ্যাটা এর বেশিও হতে পারে। মিশাইল বা রকেটগুলো হামাস নিজেরাই প্রস্তুত করেছে বলে মনে করছে জার্মানের সেই সংস্থা। কিছু রকেট ফিলিস্তিনের বাইরে থেকে ইরান ও সিরিয়া থেকেও আমদানি করা হয়েছে বলে অনুমান। একবার নিক্ষেপ করার পর মিশাইলগুলোর ওপর কোনও নিয়ন্ত্রণ থাকে না প্রেরকের। অর্থাৎ ‘আনগাইডেড’।

ইরান থেকে সংগ্রহ করা ১০৭ মিলিমিটারের রকেট রয়েছে যা সবথেকে কম শক্তিশালী বলে মনে করা হচ্ছে। এটি সর্বোচ্চ ৮ কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যে আঘাত হানতে সক্ষম। এছাড়াও একটি ১২ কিলোমিটার পাল্লার কিউ-১২ রকেট রয়েছে। গোষ্ঠীর কাছে কিউ-২০ রকেট রয়েছে বলেও দাবি করা হয়েছে। এই মিশাইলটি ২০ কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যেও আক্রমণ শানাতে পারে। কিউ ১২ এবং কিউ ২০ হামাসের একেবারেই নিজস্ব অস্ত্র, বাইরে থেকে যোগাড় করা হয়।

ফিলিস্তিনের বাইরে থেকে ৪০ কিলোমিটার পাল্লার আরও একটি রকেট আছে হামাসের; ১২২ মিলিমিটার রকেট। ৪০ কিমি পাল্লার নিজস্ব উৎপাদনের এস-৪০ রকেটও আছে হামাসের কাছে। ৭৫ কিমি পাল্লার ইরান থেকে সংগৃহীত রকেট ফজর-৩ ও আছে হামাসের দখলে। একই পাল্লার দেশীয় উৎপাদনের আরেকটি রকেট রয়েছে হামাসের; এম-৭৫।

‘জে’ সিরিজের দু’টি রকেট রয়েছে যা ৮০ এবং ৯০ কিলোমিটার পর্যন্ত আঘাত হানতে পারে। জে-৮০ ও জে-৯০, এ দু’টিও হামাসের নিজের উৎপাদন। সর্বাধিক শক্তিশালী বাকি তিনটি রকেটের প্রতিটিই ১০০ কিলোমিটার অধিক দূরত্বে আঘাত হানতে সক্ষম। এগুলোর মধ্যে এ-১২০ রকেট ১২০ কিমি পর্যন্ত এবং আর-১৬০ রকেট ১৬০ কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যবস্তু পর্যন্ত আঘাত হানতে সক্ষম।

তবে সবথেকে শক্তিশালী রকেটটি সর্বাধিক ১৮০ কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যে আঘাত করতে সক্ষম। ১২০ কিমির পাল্লার রকেটও আছে হামাসের অস্ত্রাগারে। এ-১২০ রকেট ১২০ কিমি পর্যন্ত এবং আর-১৬০ রকেট ১৬০ কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যবস্তু পর্যন্ত আঘাত হানতে সক্ষম। ১৮০ কিলোমিটার দূর পর্যন্ত আঘাত হানতে সক্ষম এম-৩০২ মিশাইলটি সিরিয়া থেকে নিয়ে আসা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here