ভাইজ্যাক টেস্ট: দ্বিতীয় ইনিংসেও সেঞ্চুরি হাঁকালেন রোহিত

0
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: শনিবার মহাসপ্তমীতে যখন গোটা বাংলা প্যান্ডেল হপিংয়ে ব্যস্ত, সেই সময় ভাইজ্যাকের ড. ওয়াইএসআর রেড্ডি এসিএ-ভিডিসিএ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ইতিহাস গড়লেন ভারতের রোহিত শর্মা। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে সেঞ্চুরির পর দ্বিতীয় ইনিংসেও সেঞ্চুরি করে ফেলেছেন তিনি। এটা তাঁর টেস্ট কেরিয়ারের পঞ্চম টেস্ট সেঞ্চুরি।

টেস্টে ওপেনিং নিয়ে বেশ অনেকদিন ধরেই সমস্যায় ভুগছে ভারতীয় দল। শিখর ধাওয়ান, মুরলি বিজয় বা লোকেশ রাহুল, সুযোগ দেওয়া হয়েছিল সকলকেই। কিন্তু সমস্যার স্থায়ী সমাধান কেউই হয়ে উঠতে পারেননি। সাম্প্রতিক সময়ে ওয়ানডে দলে ওপেনার হিসেবে দুরন্ত ছন্দে আছেন রোহিত। তাই এবার টেস্টেও তাঁকে ওপেন করানোর পরিকল্পনা নেয় থিঙ্ক ট্যাঙ্ক। এমনকি নির্বাচক প্রধান এমএসকে প্রসাদ স্বয়ং রোহিতের হয়ে সওয়াল করেছিলেন।

প্রথম ইনিংসে সাবধানী ইনিংস খেলে শতরান করেছিলেন রোহিত। খেলেছিলেন ১৭৬ রানের অনবদ্য ইনিংস। তাঁর ও মায়াঙ্কের অসাধারণ ইনিংসের সৌজন্যে ৫০২/৭ রান করে ইনিংস ডিক্লেয়ার দেয় ভারত। জবাবে ব্যাট করতে নেমে অশ্বিনের ঘূর্ণির সামনে ৪৩১ রানেই থমকে যায় দক্ষিণ আফ্রিকার ইনিংস।

৭১ রানের লিড নিয়ে খেলতে নেমে অবশ্য শুরুতেই মহারাজের শিকার হন মায়াঙ্ক (৭)। এরপর রোহিত ও পূজারা ম্যাচের হাল ধরেন। ৭২ বলে অর্ধশতরান করেন রোহিত। যদিও কেশব মহারাজের একটি বল ১৬.৪ ডিগ্রি না ঘুরলে ৪৭ রানেই স্ট্যাম্প আউট হয়ে যেতে পারতেন হিটম্যান।

 

এছাড়া এই শতরান করার পথে ভারতের মাটিতে কোনও একটি টেস্টে সবচেয়ে বেশি ছয় মারার রেকর্ড গড়লেন রোহিত। প্রথম ইনিংসে রোহিত ১৭৬ রান করেছিলেন। মেরেছিলেন ৬টি ছয়। দ্বিতীয় ইনিংসে ইতিমধ্যেই চারটি ছয় মেরে ফেলেছেন তিনি। অর্থাৎ দুই ইনিংস মিলিয়ে এখন তাঁর ছক্কার সংখ্যা ১০। এতদিন এই রেকর্ড ছিল নভজ্যোৎ সিং সিধুর। ১৯৯৪ সালে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ৮টি ছয় মেরেছিলেন তিনি। ২৫ বছর পুরনো সেই রেকর্ডই এদিন ভাঙেন রোহিত।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here