মহানগর ডেস্ক: গোপন সূত্রে খবর ছিল, বেশ বড় রকমের দুর্নীতি চলছে। এরপরেই হানা দিয়ে চেন্নাইয়ের দুটি ব্যবসায়ী গোষ্ঠীর কাছ থেকে হিসাব বহির্ভূত প্রায় ১ হাজার কোটি টাকা উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে আয়কর বিভাগ। রবিবার, তাঁরা জানায় গত ৪ মার্চ চেন্নাইয়ের এই দুই গোষ্ঠীর বিভিন্ন অফিসে তল্লাশি চালিয়ে এই বিপুল পরিমাণ অর্থ উদ্ধার করা হয়েছে।

ওই দিনই এই দুই চেন্নাইয়ের প্রথম সারির স্বর্ণ ব্যবসায়ীর মোট ২৭টি সংস্থায় ম্যারাথন তল্লাশি চালানো হয়। শুধু চেন্নাই নয় তল্লাশি চলে, মুম্বই,কোয়েম্বাটুর,মাদুরাই,ত্রিচি,ত্রিশূর,নেল্লোর-সহ মোট ২৭টি জায়গায়।

আয়কর দফতর সূত্রে খবর, কর ফাঁকি দিতে ওই দুই সংস্থা গ্রাহকদের ভুয়ো রসিদ দিত। কার্যালয়ে গুলিতে তল্লাশি চলাকালীন ওই ধরনের প্রচুর ভুয়ো রসিদ উদ্ধার হয়েছে। শুধু তাই নয় ওই দুই সংস্থা সাধারণ গ্রাহকদের সোনা ধার দিত ওই সংস্থা। তবে নোটবন্দির সময়েও প্রচুর পরিমাণে হিসাব বহির্ভূত অর্থ এই দুই সংস্থার অফিসে সঞ্চিত ছিল বলে আয়কর সূত্রে জানান হয়েছে। আয়কর দফতরের এক আধিকারিক জানান, এই দুই সংস্থা কী পরিমাণ সোনা-রূপা বিক্রি হচ্ছে তার কোনও হিসাব রাখত না। হিসাব বহির্ভূত ভাবে দিনের পর দিন ভুয়ো রসিদ দিয়ে চলত এই সংস্থা দুটি। আয়কর বিভাগের তরফ থেকে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার পরেই আপাতত ঝাঁপ ফেলেছে এই দুই সংস্থাই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here