মহানগর ডেস্কঃ ভারতে অতিমারির দ্বিতীয় ঢেউয়ের জন্য কোনও ভাবেই দায় এড়াতে পারে না কেন্দ্রীয় সরকার। অতিমারির প্রথম পর্যায়ের পর তাদের পক্ষ থেকেও দেখানো হয়েছে ‘উদাসীন’ মনোভাব। এমনটাই মনে করছেন আরএসএস প্রধান মোহন ভগবত৷

সরকারের পাশাপাশি সাধারণ মানুষের মনোভাবকেও দুষেছেন তিনি। মোটের ওপর সর্বক্ষেত্রেই গা-ছাড়া মনোভাব দেখানো হয়েছে বলে তাঁর অভিযোগ। তিনি বলেছেন, ‘প্রথম ঢেউয়ের পর মানুষ, সরকার, প্রশাসন, আমরা সকলে উদাসীন হয়ে পড়েছিলাম।’ দ্বিতীয় ঢেউ আসছে জেনেও সকলে সতর্ক হননি বলে তিনি বলেছেন। মোহন ভগবতের কথায়, ‘আমরা জানতাম দ্বিতীয় ঢেউ আসছে, চিকিৎসকরা সতর্ক করেছিলেন। তবু আমরা উদাসীন ছিলাম।’

যদিও এই পরিস্থিতি একদিন ঠিকই কাটিয়ে ওঠা সম্ভব হবে বলে তাঁর বিশ্বাস। এরই মধ্যে শিয়রে তৃতীয় ঢেউয়ের সতর্কবার্তা। আগামী দিকে কি আরও ভয়াবহ হবে পরিস্থিতি? আরএসএস প্রধানের পরামর্শ, ‘দ্বিতীয় ঢেউয়ে করা ভুলগুলি থেকে শিক্ষা নিয়ে পরবর্তী ঢেউয়ের মোকাবিলা করার জন্য তৈরি হতে হবে আমাদের। ‘ সাধারণ মানুষকে ভয় না পাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। কারণ, জীবন-মৃত্যু চলতেই থাকে বলে তাঁর মত। আরএসএস চিফ বলেছেন, ‘জীবনের চক্র চলতে থাকবে। মৃত্যু থাকবে আপন সময়ে। এসবে ভয় পেলে চলবে না। এই পরিস্থিতি থেকে ভবিষ্যতের জন্য শিক্ষা নিতে হবে আমাদেরকে । সাফল্য চূড়ান্ত নয়, ব্যর্থতাও মারাত্মক নয়। চেষ্টা চালিয়ে যাওয়ার সাহসটাই সবটুকু।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here