‘কট্টর’ খোলস ছেড়ে যুগের তালে RSS, রূপান্তরকামী ও লিভ-ইন নিয়ে আলোচনায় চায় সঙ্ঘ

0
135

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ডারউইনের মতবাদটা এতদিনে বুঝতে শুরু করেছে সঙ্ঘ। সময় বদলাচ্ছে, সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে বদল এসেছে মানুষের মনেও। তাই এবার কট্টরপন্থার খোলস ছেড়ে সামাজিক ও পারিবারিক বিষয়ে চিন্তা ও চেতনাতে বদল এনে আরও আধুনিকতার পথ ধরতে চলেছে ভারতের জনপ্রিয় ধর্মীয় সংগঠন আরএসএস। অন্তত এমনটাই ইঙ্গিত দিলেন আরএসএস নেতা সুনীল আম্বেকরের লেখা বই ‘আরএসএস রোড ম্যাপ ইন টোয়েন্টি ফার্স্ট সেঞ্চুরি’। আম্বেকরের এই বইতে বিশেষ ভাবে আলোচনা করা হয়েছে লিভইন রিলেশনে থাকা এলজিবিটিদের অধিকার ও রূপান্তরকামীদের নিয়ে।

সম্প্রতি প্রকাশিত সুনীল আম্বেকরের লেখা ওই বইয়ের মূল বিষয় ভারতের পরিস্থিতি, পরিবেশ ও ঐতিহ্যকে একুশ শতকের নিজস্ব একটি মডেলে তৈরির চেষ্টা। সেখানে ওই আরএসএস নেতার দাবি, পশ্চিমের দেশগুলিতে সামাজিক সুরক্ষার জন্য রাষ্ট্র প্রচুর পরিমাণ অর্থ ব্যয় করে কিন্তু আমাদের দেশের সরকারের সেই সামর্থ্য নেই। তাই বেসরকারিভাবে আমাদের এই উদ্যোগ নিতে হবে। এই প্রসঙ্গেই ওই সঙ্ঘ নেতার দাবি, লিভ ইন বা সমকামী বিয়ের ক্ষেত্রে একাধিক সমস্যা দেখা দিতে পারে। তবে হ্যাঁ নিজেদের যুক্তিতে অনড় থেকেই, এই বিষয়টি নিয়ে আলোচনায় বসতে চান তাঁরা। এর পক্ষে যথোপযোক্ত যুক্তি কেউ দিতে পারে তবে অবশ্যই তাঁরা বিষয়টিকে মেনে নেবেন বলে জানিয়েছেন আম্বেকর। শুধু তাই নয় আম্বেকর আরও জানিয়েছেন, অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদ (এবিভিপি) ইতিমধ্যেই রুপান্তরকামীদের মধ্যে কাজ শুরু করেছে। এই সংগঠনেরঈ দায়িত্বে রয়েছেন সুনীল আম্বেকর।

এই প্রসঙ্গেই তিনি বলেন, আমরা রুপান্তরকামীদের অধিকারের পক্ষে কিন্তু সমলিঙ্গ বিয়ে এবং লিভ-ইন ব্যবস্থায় যথেষ্ট আপত্তি রয়েছে আমাদের। সংঘের যুক্তি অনুযায়ী, এই সম্পর্ক বেশিদিন টেকে না। তাই লিভইন সম্পর্কের পর বিচ্ছেদ হয়ে গেলে বাচ্চাদের ভীষণ অসুবিধা হয়। তাই এই সমস্ত সম্পর্ক ও লিভ ইন নিয়ে কেউ যদি আলোচনা করতে চান তবে সে রাস্তা খোলা রয়েছে। যথোপযুক্ত যুক্তি দিয়ে যদি কেউ বোঝাতে পারেন তবে নিজেদের ধারণা থেকে বেরিয়ে আসতেও রাজি সঙ্ঘ। ফলে লালকালির দাগ মেরে বিষয়গুলিকে একেবারেই দূর ছাই করতে রাজি নয় সঙ্ঘ। ভারতের পারিবারিক মূল্যবোধের বিষয়গুলিকে মাথায় রেখে বিষয়গুলি নিয়ে আলোচনা চান তাঁরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here