মহানগর ডেস্ক: ১৪৩ দিনের হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের পর সলমন খানের রিয়্যালিটি শো বিগবস ১৪- র প্রতিযোগিতা শেষ হয়েছে । প্রতিযোগিতার বিজয়ী রুবিনা দিলায়েক। বিগবস -১৪ র প্রথম দিন থেকেই প্রতিযোগী হিসেবে ছিলেন রুবিনা এবং তার স্বামী অভিনব শুক্লা ।

এই প্রতিযগিতায় অংশগ্রহণ করেছিলেন রাখি সাওয়ান্ত । বিপত্তি বেধেছিল এখানেই। বিভিন্নভাবে রাখি বুঝিয়ে দিয়েছিলেন অভিনেতা অভিনব শুক্লার জন্য তিনি সব কিছু করতে পারেন। জনসমক্ষে বহুবার জানিয়েছিলেন অভিনবের প্রতি ভালোলাগা তৈরি হয়েছে তাঁর। বিগ বসের ঘর থেকে বেরিয়ে এই বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানতে গিয়ে একটি সাক্ষাৎকারে অভিনব জানিয়েছেন রাখি সাওয়ান্ত, অভিনব এবং রুবিনাকে আরো কাছাকাছি নিয়ে এসেছেন। তাদের মধ্যে তৈরি হওয়া দূরত্ব ক্রমেই কমে আসছিল।

২০১৮ সালে বিয়ে করেন এই দম্পতি। ২০২০ সালে সম্পর্ক বিচ্ছেদের পর্যায় পৌঁছোয় । খাতায় কলমে সম্পর্কটিকে শেষ করার আগে একটি দ্বিতীয় সুযোগ দিতেই তারা বিগবস -১৪ তে অংশগ্রহণ করেন। আর তাদের দেওয়া এই দ্বিতীয় সুযোগই তাদের আবার কাছাকাছি নিয়ে আসে । এই ব্যাপারে অভিনব আরো জানান রাখি সাওয়ান্ত যখন সীমা অতিক্রম করেছিলেন তখন এই দম্পতি অস্বস্তিতে পড়ছিলেন। তখন তারা সিদ্ধান্ত নেয় একে অপরকে রক্ষা করার । আর এভাবেই ফিরে আসে তাদের হারিয়ে যাওয়া বন্ডিং।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য রাখি সাওয়ান্ত একবার নিজের গায়ে ‘আই লাভ অভিনব’ লিখেও বিগবস ঘরে ঘুরে বেড়িয়েছেন। এসব দেখে রেগে গিয়ে অভিনবের স্ত্রী রাখির কীর্তিকলাপকে ‘চিপ এন্টারটেইনমেন্ট’ ও বলেন। কিন্তু তাতেও লাভ হয়নি কোনও। একটি টাস্কে রাখিকে দেখা গেছে অভিনবের শর্টস ছিঁড়ে দিতে। এর পরই রুবিনা রাখিকে নিজের স্বামীর কাছ থেকে দূরে থাকতে অনুরোধ করেন। এর পর একটি টাস্কে রুবিনাকে দেখা যায় রাখির উপর এক বালতি জল ঢেলে দিতে। রাখি আবদার করেছিলেন অভিনবের কাছে তাকে শাড়ি পরিয়ে দেওয়ার জন্য। প্রথমে রাজি না হলেও পরে বাধ্য হয়ে ছিল রাখিকে শাড়ী পরিয়ে দিয়েছিলেন অভিনব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here