kolkata news

নিজস্ব প্রতিনিধি : ছড়াচ্ছে লকডাউনের গুজব। তার জেরে হুড়োহুড়ি শুরু হয়েছে শহরাঞ্চলের বিভিন্ন বাজারে। চড়া দামের আঁচে যাতে হাত না পোড়ে, তাই রসদ মজুত করতে শুরু করেছেন গৃহস্থ। তার জেরে চড়চড়িয়ে বাড়ছে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম। যদিও এখনই লকডাউনের কোনও সম্ভাবনা নেই বলেই স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন বিদায়ী মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

গত বছরের লকডাউনের স্মৃতি এখনও ফিকে হয়নি। চড়া দরে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কিনতে হয়েছে ঘরবন্দি মানুষকে। সব সময় প্রয়োজনীয় জিনিস যে পাওয়াও গিয়েছে, তাও নয়। এবারও এপ্রিল মাস শুরু হতেই ফের হুহু করে বাড়ছে করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা। করোনা বিধি মানাতে প্রশাসনিক স্তরে শুরু হয়েছে জোর তৎপরতা। তার জেরেই ছড়িয়েছে গুজব। বলা হচ্ছে, ভোট মিটলেই লকডাউন হবে।

যদিও লকডাউন হবে কিনা, এবার সে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ভার রাজ্যগুলির ওপর ছেড়ে দিয়েছে কেন্দ্র। তাই আপাতত লকডাউন হচ্ছে না বলেই ধারণা পর্যবেক্ষকদের। কারণ খোদ মুখ্যমন্ত্রীই বলেছেন, লকডাউন কোনও সমাধান নয়। এখনই লকডাউনের কথা ভাবা হচ্ছে না।

তাহলে লকডাউনের গুজব ছড়াল কীভাবে?  ওয়াকিবহাল মহলের মতে, বাজারে কৃত্রিম অভাব সৃষ্টি করতে এসব গুজব ছড়াচ্ছে ফড়েরা। হাওড়ার এক মুদিখানার দোকানদার জানান, তাঁকে তাঁর মহাজন জানিয়েছে লকডাউন হবে। সর্ষের তেল মজুত করে নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন ওই মহাজন। একই কথা জানিয়েছেন সাঁতরাগাছির এক মুদিখানার দোকানদারও। তিনিও জানান, তাঁকেও নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র মজুত করে নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তাঁর মহাজন।        

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here