মহানগর ডেস্ক: দেশে আছড়ে পড়েছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ। পরিস্থিতি মোকাবিলায় ইতিমধ্যে বেশ কিছু নতুন নীতি নির্ধারণ করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। বিভিন্ন রাজ্যে জারি হয়েছে লকডাউন ও কারফিউর মত নিষেধাজ্ঞা। এই সঙ্কটে দেশের পাশে দাড়িয়েছে আমেরিকা ব্রিটেনের মত দেশ। পাশে থাকার বার্তা দিয়েছিল রাশিয়াও।

কথা রেখেছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।বৃহস্পতিবার সকালে মস্কো থেকে দুটো বিমান এসে পৌঁছেছে দিল্লিতে। দেশের এই দুর্দিনে অক্সিজেন কনসেনট্রেটর থেকে শুরু করে ভেন্টিলেটর, কোভিড মোকাবিলা করার নানা সরঞ্জাম ভারতে পাঠিয়েছে রাশিয়া। এই বিমান দুটি করে ২০টি অক্সিজেন কনসেনট্রেটর, ৭৫টি ভেন্টিলেটর, ১৫০টি বেডসাইড মনিটর ও ওষুধ পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি পরিস্থিতি আরও নিয়ন্ত্রণে আনতে তৃতীয় পর্যায় ভ্যাকসিন দেওয়া হবে আগামী ১ মে থেকে। এই তৃতীয় পর্যায়ের পূর্বে ভারতে আসতে চলেছে রাশিয়ার তৈরি ভ্যাকসিন ‘স্পুটনিক ভি’। তার আগে বৃহস্পতিবারের সাহায্য এসে পৌঁছল রাশিয়া তরফ থেকে।

প্রসঙ্গত, বুধবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিনের ফোনে বার্তালাপ হয়। সেই প্রসঙ্গে মোদি একটি টুইট করেছিলেন। তিনি লিখেছেন,’আমার বন্ধু রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিনের সঙ্গে কথা হয়েছে আজ। আমরা আলোচনা করেছি বর্তমান করোনা পরিস্থিতি নিয়ে। প্রেসিডেন্ট জানিয়েছেন ভারতে করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় সমস্ত রকম সাহায্য করছেন। তার জন্য প্রেসিডেন্টকে আমি ধন্যবাদ জানিয়েছি।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here