news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: পৃথিবীজুড়ে আতঙ্কের অন্যতম নাম এখন করোনা ভাইরাস। মারণ এই ভাইরাসের প্রতিষেধক এর খোঁজে হন্যে হয়ে ঘুরছেন বিজ্ঞানীরা। বিশ্বের একাধিক দেশ উঠে পড়ে লেগেছে ওষুধ আবিষ্কারে। এমন একটি পরিস্থিতিতে এবার সুখবর এল রাশিয়া থেকে। জানা গেল বিশ্বে প্রথমবার তাদের তৈরি ওষুধ করোনা চিকিৎসায় ব্যবহার করার প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। দাবি করা হচ্ছে করোনা চিকিৎসার জন্য ৮০ শতাংশ কার্যকর। রাশিয়ার তৈরি আভিফাবির নামের এই ওষুধ।

সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর ইতিমধ্যেই আভিফাবির নামের এই ওষুধকে ‘গেম চেঞ্জার’ আখ্যা দিয়েছে ‘রুশ ডক্টরস ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড (আরডিআইএফ)’ এই সংস্থার প্রধান কিরিল দিমিত্রিব সংবাদমাধ্যমকে জানান, ১১ জুন থেকে রাশিয়ায় হাসপাতালগুলোতে করোনা আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসায় ব্যবহার করা হবে এই ওষুধটি। প্রতি মাসে ৬০০০ মানুষের চিকিৎসা করা হবে এই ওষুধের মাধ্যমে। যদিও করোনা চিকিৎসার জন্য কোন ওষুধের এখনো স্বীকৃতি দেয়নি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। তবে রাশিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রক আভিফাবিরকে চিকিৎসার অনুমোদন দিয়েছে। ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের পর অনুমোদন দেওয়া ওষুধ গুলির তালিকা ইতিমধ্যেই তোলা হয়েছে আভিফাবিরের নাম। পাশাপাশি আরডিআইএফ প্রধান কিরিল জানান, ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে ৩৩০ জনের শরীরে এই ওষুধ প্রয়োগ করা হয়েছিল। মাত্র চারদিনের মধ্যেই সুস্থ হয়ে ওঠেন তারা। তিনি আরও বলেন, এটাই শেষ নয়, এখনো এই ওষুধের একাধিক ট্রায়াল করা হবে।

পাশাপাশি, রাশিয়ার তরফে জানানো হয়েছে, গত মার্চ মাসেই এই ওষুধ ব্যাপকভাবে উৎপাদনের অনুমতি দিয়ে দিয়েছিল সরকার। জানানো হয়েছে এই ওষুধ শারীরিক প্রক্রিয়ায় খুব কম মাত্রায় ঝুঁকিপূর্ণ। এর জেরে দেশের স্বাস্থ্য পরিকাঠামো ব্যাপক চাপ পড়বে না। খুব কম মানুষই গুরুতর অবস্থায় মধ্যে দিয়ে যাবেন। ৯০ শতাংশ মানুষের শরীরে এই ওষুধ মাত্র ১০ দিনেই সম্পূর্ণরূপে ভাইরাসকে ধ্বংস করতে সক্ষম। আশা করা হচ্ছে এই ওষুধ কে হাতিয়ার করে রাশিয়ার অর্থনৈতিক পরিস্থিতি স্বাভাবিক অবস্থায় আসবে। যদিও সতর্কবার্তা দিয়ে জানানো হয়েছে ওষুধটির সামান্য কিছু সাইডএফেক্ট রয়েছে এবং গর্ভবতী মহিলাদের জন্য এই ওষুধ একেবারেই প্রয়োগ করা সম্ভব নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here