মহানগর ওয়েবডেস্ক: মারণ করোনাভাইরাসের দাপট ক্রমশ বেড়ে চলেছে পৃথিবীতে। বিশ্বের প্রায় সমস্ত দেশ উঠে পড়ে লেগেছে ভ্যাকসিনের সন্ধানে। যদিও সেই তালিকায় সর্বাগ্রে রয়েছে অক্সফোর্ডের করোনা ভ্যাকসিন। তবে অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিনকে ছাপিয়ে এবার আগামী ১০ থেকে ১২ আগস্টের মধ্যে করোনা ভাইরাসের টিকা আনার দাবি জানাল রাশিয়া। মারণ ভাইরাসের জেরে পৃথিবীর এই ভয়াবহ পরিস্থিতির মাঝে যা নিশ্চিতভাবেই আশাব্যঞ্জক।

রাশিয়ার সরকার নিয়ন্ত্রিত সংবাদমাধ্যম আরআইএ নভোস্তি সূত্রে জানা গিয়েছে, করোনা ভাইরাসের এই ভ্যাকসিন আবিষ্কার করেছে মস্কোর গামালেয়া ইনস্টিটিউট ও রাশিয়ান ডিরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট। সংবাদ সূত্রে জানা গিয়েছে আগামী ১৫, ১৬ তারিখের মধ্যে সরকারের অনুমোদন পেতে পারে টিকাটি। দাবি করা হয়েছে নির্দিষ্ট নিয়ম নীতি মেনেই চলছে করোনা ভ্যাকসিন পরীক্ষা-নিরীক্ষা কাজ। মানব শরীরে প্রবেশ করানোর মাত্র তিন মাসের মধ্যেই বোঝা যাবে এই ভ্যাকসিন কাজ করছে কিনা। ভ্যাকসিন তৈরিতে এত তাড়াহুড়ো চোখে লেগেছে অনেকেরই। তবে সরকারের দাবি গুরুত্বপূর্ণ এই ভ্যাকসিন তৈরির সময়সীমা কমিয়ে আনার কোনও রকম চেষ্টা করা হয়নি।

অন্যদিকে রাশিয়ার একটি সরকার অনুমোদিত ভাইরোলজি ইনস্টিটিউট দেশের দ্বিতীয় করোনা টিকার মানব দেহে পরীক্ষা শুরু করেছে। ২৭ জুলাই 5 জনের শরীরে প্রবেশ করানো হয়েছে এই ভ্যাকসিন। তাদের শারীরিক অবস্থা বর্তমানে ভালো আছে বলেই দাবি করা হচ্ছে। প্রসঙ্গত বর্তমানে বিশ্ব তালিকায় চতুর্থ স্থানে রয়েছে রাশিয়া। এই পরিস্থিতিতে রাশিয়ার হ্যাকারদের বিরুদ্ধে করোনা ভ্যাকসিন সংক্রান্ত তথ্য চুরির অভিযোগ তুলেছে আমেরিকা, ইংল্যান্ড ও কানাডা। যদিও সে অভিযোগ পুরোপুরি খারিজ করে দিয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিন। শুধু তাই নয় অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের তৈরি করোনা ভ্যাকসিনের আগে রাশিয়ার ভ্যাকসিন বাজারে আসবে এমনটাই ইঙ্গিত দিল সেখানকার সংবাদ মাধ্যম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here