রাশিয়ার সেনা ক্যাডেটদের কণ্ঠে রফির গান, ভাসলেন দেশাত্মবোধে, ভিডিও ভাইরাল

0
bengali news on russia

মহানগর ওয়েবডেস্ক: অ্যায় বতন, অ্যায় বতন, হামকো তেরি কসম৷ রাশিয়ার সেনা ক্যাডেটদের কণ্ঠে মহম্মদ রফির এই জনপ্রিয় গান৷ দেশাত্মবোধের এই গানে ভারতীয়রা বারবার ভেসেছে৷ এবার তা ছুঁয়ে গেল রাশিয়ার সেনাবাহিনীকে৷ সম্মিলিতভাবে এই গানে গলা মেলালেন তাঁরা৷ ভারতীরা যে গানে বারবার আবেগে ভেসেছে, এবার তা চাঙ্গা করল রাশিয়ার সেনা ক্যাডেটদের৷ তাঁদের কণ্ঠে এই গান ভাইরাল হয়েছে৷ মস্কোতে ভারতীয় দূতাবাসের সেনা উপদেষ্টা ব্রিগেডিয়ার রাজেশ পুস্করকেও বাহিনীর সঙ্গে গলা মেলাতে দেখা যায়৷


সব দেশেই সেনাবাহিনীকে উদ্বুদ্ধ করার জন্য দেশাত্মবোধক গান তৈরি হয়। গাওয়া হয়। যা সেনাবাহিনীকে উজ্জীবিত করে। দেশাত্মবোধ জাগ্রত হয়। ভারত স্বাধীন হওয়ার পর কণ্ঠশিল্পীদের গলায় আর বিশিষ্ট সুরকারদের সুরে এমন অনেক গান ভারতীয় সেনাকেই নয়, দেশবাসীকেও দেশাত্মবোধে উদ্বুদ্ধ করে তোলে। রাশিয়ার সেনা ক্যাডেটদের উদ্বুদ্ধ করছে ভারতীয় সিনেমার দেশাত্মবোধক গান। এ অবশ্যই ভারতীয় হিসাবে যে কোনও মানুষের কাছে গর্বের।

১৯৬৫ সালে তৈরি হয় সিনেমা ‘শহীদ’। সেই সিনেমায় মহম্মদ রফির কণ্ঠে একটি গান জনপ্রিয়তার শিখরে ওঠে। দেশাত্মবোধক সেই গানটি ছিল ‘অ্যায় বতন, অ্যায় বতন, হামকো তেরি কসম, তেরি রাহোঁ মে জান তক লুটা জায়েঙ্গে’। গানটি এতটাই জনপ্রিয় হয় যে ভারতে এখনও তা ১৫ অগাস্ট বা ২৬ জানুয়ারিতে শোনা যায়। এখনও এই গান ভারতীয়দের শিহরিত করে। কিন্তু সেই গান যে রাশিয়ার সেনা ক্যাডেটদেরও উদ্বুদ্ধ করতে পারে তা না দেখলে হয়তো বিশ্বাস করতে পারতেন না কেউ। এই নিয়ে আলোড়িত সোশ্যাল মিডিয়া৷ এই নিয়ে অনেকে মন্তব্য করছেন, নয়াদিল্লির সঙ্গে মস্কোর সুসম্পর্কের প্রতিফলন রাশিয়ার ক্যাডাটদের গলায় ভারতীয় সঙ্গীত৷ এই মাসের গোড়ায় প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং ইন্ডিয়া রাশিয়া ডিফেন্স ইন্ডাস্ট্রি কো-অপারেশন কনফারেন্স উদ্বোধন করেন৷ রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে মোদীর নিবিড় বন্ধুতা৷ সেই সূত্রে রাশিয়ার সেনাকে চাঙ্গা করতে হাতিয়ার ভারতীয় দেশাত্মবোধক গান? কারণ যাক হোক, ভারতীয়দের কাছে এ এক শ্লাঘার বিষয়৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here