মহানগর ডেস্ক: মহিলাদের সম্মান করেন, আন্তর্জাতিক নারী দিবসে জানিয়েছেন প্রধান বিচারপতি এস এ বোবদে। গত সপ্তাহে সুপ্রিম কোর্ট একটি ধর্ষণ মামলার শুনানির সময় বিতর্কিত মন্তব্য করে। তার জেরেই শুরু হয়েছে সমালোচনা। এই প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি জানিয়েছেন, তাঁর বক্তব্যের ‘ভুল ব্যাখা’ করা হয়েছে। তাঁর কথায় ‘আমরা ধর্ষণের অভিযুক্তকে বিয়ে করতে বলিনি। আমরা তাঁকে জিজ্ঞাসা করেছিলাম, আপনি কি বিয়ে করবেন?’
গত সপ্তাহে একটি ধর্ষণের রায় দেওয়ার সময় মোহিত সুভাষ চবন নামে এক ব্যাক্তির জামিনের বিষয়ে শুনানি হয়। মোহিত স্টেট ইলেকট্রিক প্রোডাকশনে চাকুরিজীবী। তাঁর বিরুদ্ধে এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছিল। মোহিতের বিরুদ্ধে শিশুদের ওপর যৌন নির্যাতন প্রতিরোধী আইনে মামলা করা হয়। শুনানির সময় অভিযুক্তের আইনজীবী সুপ্রিম কোর্টে জানান, এই মামলায় মোহিতের চাকরি চলে যেতে পারে।
তারপরেই অভিযুক্তের উদ্দেশে প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘মেয়েটিকে লোভ দেখিয়ে ধর্ষণ করার আগে আপনার ভাবা উচিত ছিল , আপনি একজন সরকারি কর্মী। আপনি যদি বিয়ে করতে চান, আমরা আপনাকে সাহায্য করতে পারি। কিন্তু যদি বিয়ে না করেন, আপনার চাকরি যাবে।’ পরে প্রধান বিচারপতি বলেন ‘আমরা আপনাকে জোর করছি না, পরে হয়ত আপনি বলবেন, সুপ্রিম কোর্ট আপনার ওপরে চাপ দিয়েছিল।’

এই প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে সুপ্রিম কোর্ট জানায়, অভিযুক্ত অভিযোগকারিনীকে বিয়ে করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু অভিযোগকারিণী না করায় তিনি অন্য জায়গায় বিয়ে করেছেন।তাই বিয়েতে না করেন অভিযুক্ত মোহিত। সেই প্রসঙ্গে প্রধান বিচারপতি জানান ‘আমরা আপনাকে সাহায্য করছি। আমরা গ্রেফতারির ওপরে চার সপ্তাহের স্থগিতাদেশ দিতে পারি। তারপর আপনি স্থায়ী জামিনের জন্য আবেদন করতে পারেন।’

প্রধান বিচারপতির এই মন্তব্যের পরেই, অনেকেই অভিযোগ করেছেন, এই বিষয়ে বলতে গিয়ে অনেক বুদ্বিজীবী, শিল্পী এবং লেখক প্রধান বিচারপতির ক্ষমা চাওয়া উচিত বলেও জানান। সেই প্রসঙ্গেই প্রধান বিচারপতি এস এ বোবদে আন্তর্জাতিক নারী দিবসে বলেছেন ‘এবিষয়ে সম্পূর্ণ ভুল রিপোর্টিং করা হয়েছে।’ একই বিষয় বলতে গিয়ে সলিসটর জেনেরল তুষার মেহতা জানিয়েছেন , ‘ আদালত ভিন্ন প্রক্ষিতে ওই প্রশ্ন করেছিল।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here