মহানগর ওয়েবডেস্ক: দেশের জার্সিতে মহেন্দ্র সিং ধোনি যখন তাঁর কেরিয়ার শুরু করেন, তখন তাঁর আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ের মতোই চর্চায় ছিল লম্বা সোনালী চুল।

এমনকী ২০০৬ সালে ধোনি যখন পাকিস্তান সফরে গিয়েছিলেন, তখন সেদেশের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট পারভেজ মুশারফ পর্যন্ত ধোনিকে পরামর্শ দিয়েছিলেন চুল না কাটার জন্য।

দীর্ঘদিন ধোনি লম্বা চুলেই ক্রিকেট খেলেছেন। চুলের রঙেরও বেশ কয়েকবার পরিবর্তন ঘটেছে। কিন্তু লম্বা চুলের ধোনির সঙ্গে যদি সাক্ষীর দেখা হয়ে যেত, তাহলে আর যাই হোক তাঁদের দু’জনের বিয়ে তো দূরের কথা প্রেমটাও হতো না। হ্যাঁ এমনটাই জানিয়েছেন খোদ সাক্ষীই।

ধোনির লম্বা চুল অনেক মহিলার হৃদয় ঝড় তুললেও, সাক্ষীর কাছে ছিল তা অত্যন্ত অপছন্দের। চেন্নাই সুপার কিংসের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে লাইভে এসেছিলেন সাক্ষী। সঞ্চালিকা রূপা রামানি তাঁর থেকে জানতে চেয়েছিলেন, ধোনির সবচেয়ে অপছন্দের হেয়ারস্টাইল কোনটা ছিল?

সাক্ষী বলেন, “ আমার ভাগ্য ভাল যে, ধোনির যখন লম্বা চুল ছিল তখন ওর সঙ্গে দেখা হয়নি। কমলা রঙের লম্বা চুল থাকলে আমি ধোনির দিকে ফিরেও তাকাতাম না। একটা সৌন্দর্যবোধের ব্যাপার আছে। আর ওরকম হেয়ারস্টাইল জন আব্রাহামকে মানায়, মাহির ক্ষেত্রে লম্বা চুল। তার উপর আবার কমলা রং…কিছু বলার নেই। প্রেমে পড়ার দেখেছিলাম কমলা চুলের ছবি। বলেছিলাম, ভাগ্যিস, ছোট চুলের ধোনির সঙ্গেই দেখা হয়েছিল।”

সাক্ষী আরও জানান যে, লকডাউনের পর তিনি আর ধোনি উত্তরাখণ্ডের কোন ছোট্ট একটা পাহাড়ি গ্রামে গিয়ে থাকার কথা ভেবেছেন। তাঁদের ইচ্ছা রয়েছে ট্রেকিং করারও।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here