kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: সঞ্জয় লীলা বনশালীর পরবর্তী ছবিতে দেখা যাবে সলমান-আলিয়া জুটি। এই প্রথমবার বড়পর্দায় সঞ্জয় এই জুটিকে তুলে ধরছেন। ‘ইনশাআল্লা’ নিয়ে ‘ভাইজান’-এর অনুরাগীদের উল্লাস বেড়েই চলেছে। ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে সিনেমার শ্যুটিং। দীর্ঘ ২০ বছর পর সঞ্জয়ের ছবিতে দেখা যাবে সলমান খানকে। মুক্তির আগেই ‘ইনশাআল্লা’ ব্যবসা করল ১৯০ কোটি! মূলত স্যাটেলাইট রাইটস ও সিনেমার স্বত্ব স্বরূপ এই বিপুল অঙ্কের টাকা আয় করেছেন সলমান-আলিয়ার ‘ইনশাআল্লা’। তবে এবার ছবি মুক্তি নিয়ে ধোঁয়াশা শুরু হয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় সলমান জানান, ‘ইনশাআল্লা’-র মুক্তি পিছিয়ে যেতে পারে। এই খবর সামনে আসা মাত্রই অভিনেতার ভক্তদের আনন্দ নিরান্দদে পরিণত হয়ে গেল। যদিও ভক্তদের আনন্দ মাটি হতে দিলেন না ‘ভাইজান’। কিছুক্ষণ পরেই জানিয়ে দিলেন সুখবর।

সলমান বললেন, ‘মুক্তি পিছিয়ে গেলেও ২০২০-র ঈদেই দেখা হবে তোমাদের সঙ্গে।’ তবে কবে মুক্তি পাবে সেই বিষয়ে কিছু জানাননি। ‘হাম দিল দে চুকে সানাম’-এর পর থেকেই সলমানের সঙ্গে কাজ করতে চেয়েছিলেন সঞ্জয় লীলা বনশালী। কিন্তু তা সম্ভব হয়ে ওঠেনি। এরপর সলমান নিজেই জানান, ২০ বছর পর তাঁর পছন্দের পরিচালক এবং বন্ধু সঞ্জয়ের সঙ্গে কাজ করছেন। ‘ভাইজান’ লেখেন, ‘দীর্ঘ ২০ বছর পর সঞ্জয় এবং আমি ফের জুটি বাঁধছি। সঙ্গে রয়েছেন আলিয়া ভাট। পাশাপাশি অভিনেত্রী লেখেন, ‘চোখ খুলে স্বপ্ন দেখেছি এবং তা পূরণ হল। সঞ্জয় স্যার এবং সলমান খান দুজনের জাদুকর এবং এই দুই অসাধারণ মানুষের সঙ্গে কাজ করার অভিজ্ঞতা ভালোই হবে।’ আলিয়া আরও জানান, ‘যখন আমার ৯ বছর ছিল তখন আমি মায়ের সঙ্গে সঞ্জয় লীলা বনশালীর অফিসে যাই। আমি খুব ভয়ে ছিলাম এবং ‘ব্ল্যাক’-এর অডিশনে গিয়েছিলাম। দীর্ঘ অপেক্ষার পর স্বপ্ন পূরণ হল।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here