bengali news on goa
শিবসেনা মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত

মহানগর ওয়েবডেস্ক: বিহারের নির্বাচনের দিন ঘোষণা করার পরদিনই শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত জানিয়ে দিলেন, বিহারের নির্বাচনে যদি ‘ইস্যু’ কম পড়ে তাহলে মহারাষ্ট্র থেকে কিছু ‘ইস্যু’ পার্সেল করে পাঠিয়ে দেওয়া হবে। যেভাবে, বলিউড অভিনেতা ‘বিহারের ছেলে’ সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু রাজ্যে নির্বাচনের আগে রাজনৈতিক ক্ষেত্রে চর্চার বিষয় হয়ে উঠেছে সেই প্রবণতাকেই ব্যঙ্গ করেই শিবসেনা নেতা রাউত এই মন্তব্য করেছেন। আগামী ২৮ অক্টোবর থেকে শুরু তিন দফার বিহার বিধানসভা নির্বাচনের ফল ঘোষিত হবে ১০ নভেম্বর।

তার মন্তব্যের ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে শিবসেনা নেতা বলেন, ‘’বিহারের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা হওয়া উচিত উন্নয়নের ইস্যুতে, আইন, শৃঙ্খলা এবং সুশাসনের প্রশ্নে। কিন্তু এই সব ইস্যুগুলো যদি সব শেষ হয়ে যায় তাহলে মুম্বই থেকে ইস্যু পার্সেল করে পাঠানো যেতে পারে।‘’

১৪ জুন বান্দ্রায় নিজের ফ্ল্যাটে সুশান্ত সিং রাজপুতের দেহ ঝুলতে দেখা যায়। প্রাথমিক ভাবে মুম্বই পুলিশের পক্ষ থেকে এটিকে আত্মহত্যা বলা হলেও পরে বিষয়টি নিয়ে অনেকেই প্রশ্ন তুলতে শুরু করেন। বিশেষ করে মৃত অভিনেতার পরিবার থেকে এই বিষয়ে তদন্ত দাবি করা হয়। সেই তদন্তের কারণে বিহার পুলিশের একটি দল মুম্বই পৌঁছলে মহারাষ্ট্র পুলিশের সঙ্গে তাদের প্রশাসনিক স্তরে সংঘাত তৈরি হয়। বিহার পুলিশের সদ্য অবসর নেওয়া ডিজি গুপ্তেশ্বর পাণ্ডে অভিযোগ করেন, মহারাষ্ট্র পুলিশ তাদের তদন্তকারী দলকে সহায়তা করেনি।

বিষয়টি দ্রুত রাজনীতিতে পরিণত হয়। শিবসেনা–কংগ্রেস–এনসিপি জোট সরকারের বিরুদ্ধে বিজেপি অভিনেতার মৃত্যু তদন্তে কাউকে ‘আড়াল’ করার উদ্দেশে বাধাদানের অভিযোগ তোলে। শিবসেনার পক্ষ থেকে এই অভিযোগকে ভিত্তিহীন বলে দাবি করা হয়। সুশান্ত সিং রাজপুত বিহারের বাসিন্দা হওয়ায় এনডিএ জোট আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের দিকে লক্ষ্য রেখে এই ভাবাবেগকে কাজে লাগিয়ে বিজেপি বিরোধীদের নিশানা করে।

বিহারের নির্বাচন প্রসঙ্গে  সঞ্জয় রাউত বলেন, ‘’আগামী ২ থেকে ৩ দিনের মধ্যে বিহার নির্বাচনের বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে বক্তব্য পেশ করবেন। বিহারের নির্বাচন জাতপাত ও অন্যান্য বিষয়কে কেন্দ্র করে হয়। শ্রম আইন বা কৃষি বিল বিহার নির্বাচনে কোনও ইস্যু নয়।‘’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here