ডেস্ক: বেকার সমস্যায় জর্জরিত পশ্চিমবঙ্গ, শিল্পের দিক থেকে ব্যাপক চেষ্টা সত্ত্বেও আহামরি লাভ তেমন কিছু হয়নি। এহেন পরিস্থিতি বারে বারেই তোপের মুখে পড়তে হয়েছে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। তবে পরিস্থিতি সামাল দিতে সিভিক ভলিন্টিয়ার সহ নানান ক্ষেত্রে বেকারদের কর্মসংস্থান করার ত্রুটি রাখেননি তিনি। এরইমাঝে ফের কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি হল বাংলায়। কর্মীশূন্য রাজ্যের গ্রন্থাগারগুলিতে কর্মী নিয়োগ করতে তৎপর হচ্ছে রাজ্য।

সম্প্রতি, উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জে এক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এসেছিলেন রাজ্যের গ্রন্থাগার বিষয়ক মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী। কর্মসংস্থান নিয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ব্যাপক প্রশংসা করার পাশাপাশি তিনি জানান, খুব শীঘ্রই বড়সড় একটি নিয়োগ হতে চলেছে রাজ্যে। দীর্ঘদিন ধরেই ব্যাপক কর্মী সংকটে ভুগছে রাজ্যের গ্রন্থাগারগুলি সে কথা স্বীকার করে নিয়ে সিদ্দিকুল্লা বলেন, ‘ইতিমধ্যেই বিষয়টি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী, অর্থমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীর কাছে ফাইল পাঠানো হয়েছে। খুব শীঘ্রই শূন্যস্থানগুলি পূরণ করে আবার ঠিকঠাক ভাবে চালু করা হবে গ্রন্থাগারগুলি। ‘

কর্মীসঙ্কটের জেরে রাজ্যের ২ হাজার ৪৮০ টি গ্রন্থাগারের মধ্যে বন্ধ হয়ে পড়ে রয়েছে ৩০০ টি গ্রন্থাগার। শূন্যপদ খালি রয়েছে প্রায় ৩ হাজার ২০০ টি। এই শূন্যপদগুলির প্রত্যেকটাতেই চুক্তিভিত্তিক কর%