kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, হাওড়া: স্কুল থেকে মিড ডে মিলের চাল পাচারের অভিযোগ উঠল প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে।শনিবার উত্তাল হয়ে ওঠে হাওড়ার নাজিরগঞ্জ তদন্ত কেন্দ্রের গোহাবেড়িয়া রংকল হাই স্কুল চত্বর। জানা গিয়েছে, শনিবার এই স্কুল থেকে এগারো বস্তা চাল পাচার হয়। এই বিষয়ে স্কুলের অনান্য শিক্ষকেরা প্রধান শিক্ষককে জানাতে গেলে তিনি পুরো বিষয়টিকে অবহেলা করেন। এরপরেই ঝামেলার সূত্রপাত। প্রধান শিক্ষক সুর্ণেন্দু কুমার মণ্ডলকে ঘিরে রাখে অনান্য শিক্ষকেরা। স্কুলের পড়ুয়ারাও বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে।

অভিযোগ, গত চার বছর ধরে এই স্কুলে কোনও মিড ডে মিল হয় না। অথচ চাল আসে নিয়মিত এবং তা একই ভাবে পাচার করে দেওয়া হয়। এর আগেও এই ধরনের ঘটনায় যুক্ত ছিলেন এই প্রধান শিক্ষক। গুদামে বস্তা বস্তা চাল জমা হলে তা মাঝে মধ্যে পাচার করা হয় বলে জানিয়েছে ছাত্ররাও। এদিন বিষয় জানাজানি হতেই এলাকার মানুষ ও অভিভাবকরা সামিল হয় বিক্ষোভে। পরে পুলিশ এসে অভিযুক্ত শিক্ষককে উদ্ধার করে নিয়ে যায়। অভিভাবকদের অভিযোগ, ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে খুব একটা ভালো আচরণ করেন না প্রধান শিক্ষক। পরীক্ষার সময় বাড়ি থেকে পাতা আনতে বলা হয়। এমনকি স্কুলে কোনও জলের ব্যবস্থাও নেই। ছাত্র-ছাত্রীদের বাড়ি থেকে জলও আনতে বলা হয়।

এই বিষয়ে এক শিক্ষক বলেন, আমাদের এক সহকর্মীর সঙ্গে প্রধান শিক্ষকের ঝগড়া বাঁধে। বাইরে বেরিয়ে দেখি হেডস্যার চাল বিক্রি করে দিচ্ছে আর এই নিয়ে দুজনের মধ্যে তর্কাতর্কি শুরু হয়। এই বিষয়ে প্রধান শিক্ষককে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন,  এই ব্যাপারে আমি তোমাকে কোনও কৈফয়েত দেব না। আমার ওপর কথা বলার কারও অধিকার নেই। জানা গিয়েছে, বেশ কিছুদিন ধরে স্কুলে মিড ডে মিল দেওয়া হচ্ছে না। কিন্তু ছয় মাস ছাড়াই ৩০ ও ৫০ বস্তা করে চাল স্কুলে ঢুকে যাচ্ছে। অথচ তিন চার বছর ধরে ছেলে মেয়েদের কোনও মিড ডে মিল দেওয়া হচ্ছে না বলে জানান ওই শিক্ষক।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here