ডেস্ক: কয়েকদিন আগেই ফেসবুকে বিদায়বার্তা দিয়েছিলেন তিনি নিজেই। যদিও সেই লেখা দেখে কেউ বুঝতেই পারেননি সত্যি সত্যি পৃথিবী ছাড়ার পরিকল্পনা নিয়ে ফেলেছেন তিনি। যদি বুঝত তাহলে হয়ত তাকে চিরতরে হারাতে হত না। এখন এই আফশোসটাই কুরে কুরে খাচ্ছে রমেশ মণ্ডলের পরিচিতজনকে। বুধবার সন্ধ্যায় কোন অজানা ক্ষোভ মনে চেপে রেখেই চিরঘুমের দেশে নিজে থেকেই পাড়ি জমালেন বছর সাতেশের রমেশ।

পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার ঘাটাল মহকুমার চন্দ্রকোনা-১ ব্লকের ক্ষীরপাই পুরসভা এলাকার বামারিয়াতে বুধবার সন্ধ্যায় ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার হয় রমেশবাবুর দেহ। তিনি চন্দ্রকোনা এলাকার কাসন্ড প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষক ছিলেন। কয়েকদিন আগেই নিজের ফেসবুক পেজে তিনি ‘বাই’ কথাটি লিখে পোস্ট করেন। যদিও তা দেখে কেউ বুঝতে পারেনি যে তিনি আত্মহত্যা করতে চলেছেন। এটাই আক্ষেপ তার পরিজনদের। পুলিশ ঘটনার তদন্তে নেমে মনে করছে মানসিক অবসাদের কারণেই আত্মঘাতী হয়েছেন রমেশবাবু। তবে কি কারণে তিনি অবসাদে ডুবে গিয়েছিলেন সেটাই বুঝতে পারছে না পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here