ডেস্ক: এককথায় তাঁকে পদার্থবিজ্ঞানের অন্যতম জনক বলা যেতে পারে। ব্ল্যাক হোল নতুন থিওরির প্রবক্তা তিনি। বিজ্ঞানের উপরে তাঁর লেখা রয়েছে বহু বই। তিনি স্টিফেন হকিং। প্রয়াত হলেন পৃথিবীর সেরা বিজ্ঞানীদের মধ্যে অন্যতম এই স্টিফেন হকিং। তাঁর পরিবার সূত্রে এখবর জানানো হয়েছে। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৬ বছর।

কেমব্রিজে নিজের বাড়িতে বুধবার ভোরে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন হকিং। এরপর তাঁর তিন সন্তান লুসি, রবার্ট ও টিম একটি বিবৃতি জারি করে এই দুঃসংবাদ জানান। খুব স্বাভাবিকভাবে তাঁর মৃত্যুতে শোকবদ্ধ তাঁর পরিবার সহ গোটা দেশ। এদিন এক বিবৃতিতে বিজ্ঞানী সন্তানরা জানান, ‘বাবা একজন মহান বিজ্ঞানী ছিলেন সেই সঙ্গে একজন সাধারণ মানুষও। তাঁর কাজ ও প্রভাব বহুদিন পর্যন্ত মানুষের মনে থেকে যাবে।

বিখ্যাত এই বিজ্ঞানির জন্ম ১৯৪২ সালে আমেরিকার অক্সফোর্ডশায়ারে। এরপর অক্সফোর্ড ও কেমব্রিজ দুই নামী বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা করেন তিনি। গোটা কেরিয়ারে বিজ্ঞানের উপর লিখেছেন বহু বই। তাঁর বৈজ্ঞানিক কাজকর্মের জন্য দেশ বিদেশ থেকে পুরস্কৃতও হয়েছেন তিনি। আধুনিক মহাকাশ পদার্থবিদ্যায় স্টিফেন হকিংয়ের অবদান অনস্বীকার্য। সৃষ্টির উত্স সম্পর্কে তাঁর গবেষণা ব্রহ্মাণ্ডের রহস্যভেদে সভ্যতাকে অনেকটা এগিয়ে দিয়েছেন বলে মনে করেন বিজ্ঞানীরা।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here