Parul

মহানগর ডেস্ক: রবিবার রাতে বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টির স্বামী রাজ কুন্দ্রাকে গ্রেপ্তার করেছিল মুম্বাই পুলিশ। রাজের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছিল যে তিনি পর্নোগ্রাফি সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন। তার যথেষ্ট প্রমাণ ছিল মুম্বাই পুলিশের কাছে। সোমবারের শেষ পাওয়া খবরে অনুযায়ী জানা গিয়েছিল যে শুধু রাজকুন্দ্রা নয় রাজ কুন্দ্রার সঙ্গে আরও একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। দুজনকেই পুলিশ কাস্টডিতে নেওয়া হয়েছে।

ads

এরপরেই মঙ্গলবার পুলিশের হাতে এসেছে রাজ কুন্দ্রার হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট। যেখানে এইচ অ্যাকাউন্ট নামে একটি গ্রুপ রয়েছে। যার গ্রুপ অ্যাডমিন শিল্পা শেট্টির স্বামী রাজ কুন্দ্রা। সেই গ্রুপে পর্ন সাইট এর সমস্ত লাভ-ক্ষতির হিসেব করা হয়েছে। এছাড়াও পুলিশ সন্দেহ করছে যে হটশটস নামে যে অ্যাপে পর্ন ছবি প্রকাশ করা হত তার হিসেব চলত এই গ্রুপে।

একইসঙ্গে জানা গিয়েছে যে, পর্ন ছবির শুটিং জন্য যে বাংলো ব্যবহার করা হত, তার সন্ধান পাওয়া গেছে। এছাড়াও জানা গিয়েছে ফেব্রুয়ারি মাসে মুম্বাইয়ের মাড আইল্যান্ডের একটি বাংলোয় এসেছিল পুলিশ। পুলিশের কথায় সেই বাংলোই ভাড়া নেওয়া হয় যৌনপেশা খাতিরে। সেখান থেকে ৯ জনকে পর্ন ছবি বানানোর অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। এমনকি বাংলার পাশে মেকআপ রুম দেখা গিয়েছে। বাংলো ভাড়া প্রায় কোটি টাকার কাছাকাছি।

পুলিশ সূত্রে আরও জানা গিয়েছে যে, হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট এর এই গ্রুপটিতে কোন ভিডিও বেশি জনপ্রিয় হয়েছে, কোন ভিডিও কম বার দেখা হয়েছে সেই বিষয়েও আলোচনা করা হতো। ব্যবসায় লাভ টাকা পয়সার হিসেব নিয়ে বিস্তারিত চ্যাট এসেছে প্রকাশ্যে।

উল্লেখ্য, গতকাল আরও একটি বিষয় সামনে এসেছিল। বলি অভিনেত্রী পুনাম পান্ডে ও শার্লিন চোপড়া জানিয়েছিলেন যে, রাত কুন্দ্রার হাত ধরেই তারা এই অ্যাডাল্ট ভিডিও জগতে এসেছিলেন। বর্তমানে গোটা সোশাল মিডিয়া জুড়ে শিল্পা শেট্টি ও তার স্বামী রাজ কুন্দ্রাকে নিয়ে ছি ছি পড়ে গিয়েছে। যদিও রাজ কুন্দ্রার উপরে ওঠার সমস্ত অভিযোগ অভিযুক্ত নিজেই অস্বীকার করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here